নাসিকে জমে উঠেছে ভোটের মাঠ

ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনকে সামনে রেখে জমে উঠেছে ভোটের মাঠ। এবারের নির্বাচনে বিএনপি দলীয় প্রার্থী না দিলেও মাঠে রয়েছে আওয়ামী লীগসহ বিএনপির স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচনী লড়াইয়ে রয়েছেন। প্রত্যেক প্রার্থীই সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটে বেড়াচ্ছেন।

আজ ছুটির দিন শুক্রবার সকাল থেকেই নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদের প্রার্থীরা তাদের প্রচারণায় নেমে পড়েন। নগরীর জামতলা এলাকায় প্রচারণা চালায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও সিটি কর্পোরেশনের সিদ্ধিরগঞ্জের ৬ নং ওয়ার্ডের কদমতলী এলাকায় গণসংযোগ করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার।

ভোটারদের অনুকুলে আনতে ও এলাকার উন্নয়নের জন্য প্রার্থীরা জনগণকে দিচ্ছেন বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি। জানাচ্ছেন তাদের নানা পরিকল্পনার কথা।
গণসংযোগকালে সাংবাদিকদের নৌকার প্রার্থী আইভী বলেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী চলমান কাজগুলো সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। ওয়াসার দ্বায়িত্ব ঢাকা থেকে আমরা নিয়েছি, পানির বিষয়ে আমি বেশি জোড় দিব, যাতে জনসাধারণ সুপেয় পানি পায়। পানি সর্বরাহে ব্যবহৃত পাইপগুলো অনেক পুরনো, এগুলো সংস্কারের বিষয়ে কাজ চলমান রয়েছে। এশিয়ান ডেভলাপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি) ৮শত কোটি টাকা দিয়েছে। পাশাপাশি পরিবেশের উপর জোড় দিয়ে খাল খনন, পুকুর পুণুরুদ্ধার, মাঠ তৈরী এ কাজগুলো করতে চাই।

এদিকে নাসিকের ময়ের পদের সতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এ্যাড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, এখানকার জাতিগত যে বৈষম্য রয়েছে তা নিরসনে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এলাকার পুকুরগুলোর সুন্দর্যবর্ধণ করে তা জনগনের ব্যবহার উপযোগী করা হবে, শীতলক্ষার পানিকেও মানুষের ব্যবহার উপযোগী করা হবে এবং সামজিক সমস্যাগুলো দুর করে ভাতৃত্ববোধ গড়ে তোলা হবে। জনগণ থেকে গলাকাটা ট্যাকাস নেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশের ১২টি সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ট্যাক্স নেয় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন। পানির কল বসাতে তাকে দিতে হয় দের লাখ টাকা,ট্রেড লাইসেন্সের ফি বৃদ্ধি করা হয়েছে, জন্মনিবন্ধন জটিলতায় মানুষ আজ জর্জরিত। এগুলি কি উন্নয়ন?

আরোও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ