ওসমানদের হয়ে আমাকে

নির্বাচনে অভিনয় করতে হবেনা: তৈমূর

‘গত ৫০বছর ধরে মাটি ও মানুষের সাথে রাজনীতি করতে করতে তৈমূর আলম খন্দকারের ভিত্তি এতটাই শক্ত অবস্থানে এসেছে যে, কোন শামীম ওসমান বা সেলিম ওসমানের হয়ে আমাকে নির্বাচনে অভিনয় করতে হবে না। যে দল গড ফাদার ও খুনীদের লালন-পালন করে, যে দলের নেত্রী দেশ ধ্বংশের দিকে ঠেলে দেয়, সেই দল আপনি (আইভী) করেন কেন? সরকার দলের প্রার্থীর অবস্থান এতটাই নরবড়ে যে, আমার প্রতীক হাতি এখন জনতার প্রতীক হয়েগেছে।

সরকার দলীয় প্রার্থীর পায়ের নিচের মাটি এতটাই সড়ে গেছে যে, পুলিশ প্রশাসনের লোকজনদের দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে আর জোড় করে দলের নেতাকর্মীদের প্রচারণায় নামাতে হচ্ছে’, রবিবার (০৯ জানুয়ারী) দুপুর ৩টায় নিজ বাসভবনের মজলুম মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভায় একথা বলেন নাসিক নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার।

তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, সরকার দলের নেতাদের এই বিভেদ-বিভাযন এই নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নের প্রধান অন্তরায়। শামীম ওসমান সরকার দলের এমপি আর সেরিম ওসমান সরকারের জোটভুক্ত দলের এমপি। আমি বরাবরই প্রথম থেকেই বলেছি, শামীম ওসমাসের পায়ের উপর ভর করে তৈমূর আরশ খন্দকার হাটে না। গত ৫০বছর ধরে মাটি ও মানুষের সাথে রাজনীতি করতে করতে তৈমূর আলম খন্দকারের ভিত্তি এতটাই শক্ত অবস্থানে এসেছে যে, কোন শামীম ওসমান বা সেলিম ওসমানের হয়ে আমাকে নির্বাচনে অভিনয় নামতে হবে না।

এসময় তৈমূর বলেন, যেসকল সাংবাদিক নাসিক পরিচালনায় মেয়রের ব্যর্থতা পত্র-পত্রিকায় তুলে ধরেছে তাদের অনেককেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলায় পড়েছেন এবং কারাগারেও যেতে হয়েছে। ২০১৯ সালে জিমখানা পার্কে আপনি বলেছেন, ‘‘সাগর-রুনির ব্যাপারে আমরা অনেকেই জানি, অনেক কিছুই জড়িত।’’ যদি উক্ত হত্যা কান্ড সম্পর্কে জানা থাকে অবশ্যই তা জনসম্মুখে প্রকাশ করলে জনগণ আপনাকে ধন্যবাদ জানাবে।
তিনি বলেন, আমি তৈমূর আলম খন্দকার প্রথম দিন থেকেই বলছি, শামীম ওসমানের পায়ে তৈমূর আলম খন্দকার হাটে না।

আপনার মতে যে দল গডফাদার, খুনী লালনপালন করে, যে দলের নেত্রী দেশকে ধ্বংশের দিকে ঠেলে দেয়, সেই দল আপনি করেন কেন?, বলেও প্রশ্ন রাখেন তিনি।

এসময় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, এ সময় তৈমুর আলমের সাথে উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরাম, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির উপদেষ্টা জামাল উদ্দিন কালু, সহসভাপতি আতাউর রহমান মুকুল, হাজী ফারুক হোসেন, হাজী নুরুদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক এ টি এম কামাল, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুস সবুর খান, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি কামাল হোসেন প্রমুখ।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ