শোকজের নামে আইওয়াশ করছে নির্বাচন কমিশন: তৈমূর

- Advertisement -

সরকারদলীয় প্রর্থী একের পর এক আচরণবিধি লঙ্ঘন করছেন। তবে সরকারদলীয় প্রার্থী আচরণবিধি ভঙ্গ করলেও শোকজের নামে আইওয়াশ করছেন নির্বাচন কমিশন। এছাড়াও নৌকার প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় নেমে কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বলে গেছেন, তৈমূরকে রাস্তায় নামতে দেয়া হবেনা। রবিবার (০৯ জানুয়ারী) দুপুর সাড়ে ৩টায় নিজ বাসভবনের মজলুম মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভায় একথা বলেন নাসিক নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার।

এসময় তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, একদিকে সরকারদলীয় প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় নেতারা এসে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের বুলি আওড়াচ্ছেন, অপরদিকে নগরীর ২৭টি ওয়ার্ডে আমার পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হওয়ায় কর্মী সমর্থকদের পরোক্ষভাবে হুমকি-ধামকি দেয়াসহ পোস্টার ছিড়ে ফেলার সংবাদ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। শুধু তাই নয় সাংবাদিক বন্ধুগণ, সরকারী দলের কেন্দ্রীয় নেতারা এসে গোয়েন্দা রিপোর্টের ফলাফর বলে সম্মানীত ভোটারদের অসত্য তথ্য দিচ্ছেন, যা কোন স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে হলে ওই নেতাকে আইনের সম্মুখিন হতে হত।

সরকারদলের মূখপাত্ররা ও সাধারণ সম্পাদক অবলিলায় বলে দিচ্ছেন, তাদের প্রার্থী জয়ী হবে, যে কোন মূল্যে জয়ী করা হবে। এমনকি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রেফারেন্স দিয়ে বিভিন্ন স্থানীয় পত্র পত্রিকায় লেখা হচ্ছে, নৌকা লক্ষাধিক ভোটে জয়ী হবে। যা পক্ষান্তরে নির্বাচন কমিশন ও জনগণকে প্রভাবিত করার সামিল। আমি বিশ্বাস করতে চাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এধরনের কথা বলেননি। তার নামে মিথ্যাচার করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ২০১৮ সালেই বলেছেন, তৈমূর বিজয়ী হওয়ার মত প্রার্থী।

তৈমূর বলেন, গত শনিবার (০৮ জানুয়ারী) সরকার দরীয় মেয়র প্রার্থী আমাকে নিয়ে তার নিজ দলের একজন এমপি ও জাতীয় পার্টির একজন এমপিকে জড়িয়ে যে রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত মন্তব্য করেছেন সে ব্যাপারে কিছু না বললেই নয়। তাই সংগত কারনে আজকের এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমি যারা ভোটের মালিক, সেই নারায়ণগঞ্জবাসী ও জাতির দর্পণগণমাধ্যমের স্বরনাপন্ন হয়েছি।

এসময় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, এ সময় তৈমুর আলমের সাথে উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরাম, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির উপদেষ্টা জামাল উদ্দিন কালু, সহসভাপতি আতাউর রহমান মুকুল, হাজী ফারুক হোসেন, হাজী নুরুদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক এ টি এম কামাল, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুস সবুর খান, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি কামাল হোসেন প্রমুখ।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page