টিকা না পেয়ে হতাশ আগত জনতা

না.গঞ্জে গনটিকা কার্যক্রমে চরম বিশৃঙ্খলা

- Advertisement -

সারাদেশের মত নারায়ণগঞ্জেও চলছে করোনার গণটিকা কার্যক্রম। সকাল থেকেই টিকা নিতে শহরের অস্থায়ী কেন্দ্রগুলোতে টিকা গ্রহীতাদের ভীড় ছিল চোখে পড়ার মত। মূলত কেন্দ্রের সংখ্যা সীমিত থাকায় এবং রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই টিকা দেয়ার সুযোগ থাকায় চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে শহরের স্থায়ী-অস্থায়ী প্রায় সবগুলো টিকা কেন্দ্রে।

বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) শহরের বিভিন্ন স্থায়ী-অস্থায়ী টিকা কেন্দ্র ঘুরে এ দৃশ্য দেখা গেছে।

কোন রকমের রেজিস্ট্রেশনের জটিলতা না থাকায় সকল বয়সী লোকজন টিকা নিতে ভীড় করছেন শহরের টিকা কেন্দ্র গুলোতে। তবে ভীড়ের কারনে টিকা নিতে দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে মানুষকে। এতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে নাগরিকদের৷ অনেকেই দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে শেষে টিকা না নিয়েই ফিরে গেছেন। অতিরিক্ত ভীড়ের কারনে প্রায় সকল কেন্দ্রেই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি দেখা গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হিমশিম খেতে হচ্ছে কর্তৃপক্ষকে।

শহরের খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালে ঢুকেই প্রায় কয়েকশত লোকের জটলা দেখা গেছে। তাদের বেশিরভাগই এসেছেন করোনার টিকা নিতে। এই একই হাসপাতালে করোনা রোগীদের চিকিৎসা ও সম্ভাব্য আক্রান্তদের করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। তার পরেও হাসপাতালে দেখা যায়নি স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই। ধাক্কাধাক্কি, হুড়োহুড়ি করেই যে যার যার মত টিকা নিতে চেষ্টা করে গেছেন।

১৩ নং ওয়ার্ডের আদর্শ স্কুল কেন্দ্রে টিকা নিতে আসা কয়েকজন জানান, কোন প্রকার রেজিস্ট্রেশনের ঝামেলা না থাকায় সহজেই টিকা নিতে পেরেছি। তবে এখানে অনেক ভীড় এবং লাইন অনেক বড়। সেকারণে অনেকক্ষণ দাড়িয়ে থাকতে হচ্ছে।

শহরের ১২ নং ওয়ার্ডের শিশুকল্যাণ স্কুল কেন্দ্রেও টিকা গ্রহীতাদের ব্যপক ভীড় দেখা গেছে। টিকা নিতে আসা কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, ক্লাস ও পরীক্ষার জন্য কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অন্তত প্রথম ডোজ টিকা নেয়া বাধ্যতামূলক ঘোষণা করেছে। তাই তরিগড়ি করেই টিকা নিতে আসা।

কয়েকজন গার্মেন্টস শ্রমিকের সাথে কথা বলে জানা যায়, ইতোমধ্যে পোষাক কারখানাগুলোতেও টিকা নেয়া বাধ্যতামূলক কর হয়েছে। টিকা না নিলে কিছুদিন পর থেকে আর কারখানায় সশরীরে গিয়ে কাজ করা যাবে না। তাই এখানে যেভাবে করেই হোক, টিকা নিতে এসেছেন তারা।

এসময় অভিযোগের সুরে কয়েকজন শ্রমিক জানান, আমরা ছুটি নিয়ে এখানে এসেছি। আজকে টিকা না দিতে পারলে ঝামেলায় পড়ব। তাই যে করেই হোক টিকা নিতে চাইছি। আমাদের তো অত ছুটি নেয়া সম্ভব হয় না। এতে অনেক সময়ই বেতন কাটা পড়ে।

আরোও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page