টিকাদান কার্যক্রম পরিদর্শনে স্বাস্থ্য সচিব

যতদিন করোনা ততদিন টিকা

- Advertisement -

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. লোকমান হোসেন বলেন, বাংলাদেশের মানুষ উৎসব মুখর পরিবেশে টিকা নিচ্ছে। টেকনাফ  থেকে শুরু করে তেতুলিয়া সবাই টিকা নিচ্ছে। প্রায় ২০ হাজার কেন্দ্রে আমাদের ১ লাখ কর্মী কাজ করছে। আপনাদের সবাইকে অনুরোধ করবো যারা এখনো টিকা নেন নাই এখনি নেন। টিকা নিলে আপনি নিরাপদ থাকবেন, আপনার পরিবার নিরাপদ থাকবে, রাষ্ট্রা নিরাপদ থাকবে। নারায়ণগঞ্জে স্থায়ী লোকের চেয়ে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের, কলকারখানা, দোকানদার ভাসমান লোক বেশি। গত দুইদিনে ৫ লাখ মানুষকে টিকার আওতায় আনা হয়েছে। আজকে আমরা তার চেয়ে বেশি অধিক টিকা দিতে পারবো। যতদিন পর্যন্ত টিকা দেয়া লাগবে ততদিন আমরা দিতে থাকবো। ২৬ ফেব্রুয়ারি পরও চলবে আমাদের টিকার প্রথম ডোজ দেয়া।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সারাদেশে ১ কোটি টিকা কর্মসূচি প্রদান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জের কার্যক্রম পরিদর্শনকালে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এ সময় সচিব মো. লোকমান হোসেন আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জ আসার পূর্বে আমি ঢাকা কয়েকটি কেন্দ্রে ঘুরে দেখেছি সবাই টিকা দিচ্ছে। নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা কেন্দ্রেও হাজার হাজার লোক দেখেছি। আমাদের যে কোটি টার্গেট ছিলো আশা করি তার অধিক হবে।

বাংলাদেশ করোনার থাবা থেকে বর্তমানে ভালো অবস্থানে আছে। সকল মানুষ সকল ডোজ দিবে প্রথম ডোজ দিবে দ্বিতীয় ডোজ দিবে বুস্টার ডোজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইতি মধ্যে আমাদের স্কুলে ১২ বছর থেকে শুরু করে ১৭ বছর বয়সের ১ কোটি ৬০ লাখ ছেলে মেয়েদের টিকা দেয়া হবে।

টিকা কেন্দ্রে পরির্দশনে সময়  উপস্থিত ছিলেন- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশসাক মঞ্জুরুল হাফিজ, সিভিল সার্জন আবুল ফজল মোহাম্মদ মশিউর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রিফাত আল হাসান।

আরোও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page