ঢাকাবুধবার , ২ মার্চ ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

আমার নামে কিছু চাই না

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ স্টাফ
মার্চ ২, ২০২২ ৬:৩০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মেয়র আইভরি নামে রাস্তার নামকরণে এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, রোড-কালভার্ট আমার নামে দিবে আমি এটা পছন্দ করি না। আমার নামে কোন কিছু হোক তা আমি চাই না। আমি চাইলে এই ১৮ বছরে কিছু না কিছু করতে পারতাম। আমি আপনাদের মাঝেই বেঁচে থাকতে চাই। আমার মৃত্যুর পরেও যেন আপনারা আমার জন্য দোয়া করেন। আপনাদের দোয়াই আমাকে বেহেস্তে পৌঁছায় দিবে। মানুষ বেঁচে থাকে তার কর্মের মধ্যে। আমার বাবা আলী আহাম্মদ চুনকার নামেও খুব বেশি কিছু নাই এ শহরে। কিন্তু সেই আলী আহাম্মদ চুনকাকে এখনও মানুষ স্মরণ করে। তাঁর কৃতকর্মের জন্য, তাঁর মানবতার জন্য, তাঁর মনুষ্যবোধের জন্য। আমি তাঁর সন্তান। আপনাদের মাঝে সেই মানবতা নিয়ে মনুষ্যবোধ নিয়ে দলমতের উর্ধ্বে উঠে জনকল্যাণে কাজ করার জন্য বেঁচে থাকতে চাই। । 

বুধবার (২ মার্চ) বিকেলে বন্দরের ২০ নং ওয়ার্ডের দড়ি সোনাকান্দা এলাকায় গভীর নলকূপ স্থাপন কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। 

এ সময় মেয়র আইভী আরো বলেন, আমার দল আওয়ামী লীগ। আমি জয় বাংলা বলবো, জয় বঙ্গবন্ধু বলবো। কিন্তু আমি কাজ করবো সব দলের মানুষের জন্য। আপনারা আমাকে ভোট দেন আর না দেন। কেউ নৌকায় ভোট দেন নাই, পছন্দ করেন নাই তাতে আমার কিছু যায় আসে না। আমি আপনাদেরকে খেদমত করে যাবো ইনশাল্লাহ। যতবার সুযোগ দিবেন ততবারই আপনাদের খেদমত করতে চাই।

আইভী বলেন, ভোটের সময় আপনাদের হাত পা ধরে ভোট নেই। আর পাশ করার পর মঞ্চে বসে ২ ঘন্টা বলে চলে যাবো এটা ঠিক না, আপনাদের কথাও শুনতে হবে। কারণ আমরা যারা মঞ্চে থাকি তারাই কথা বলি সাধারণ মানুষের কথা শুনা হয় না। আগামী ১৪ মার্চ আমাদের মাসিক সভা। তখন আমি সকল কাউন্সিলরদের বলবো তারা যেন বছরে একবার যেন একটি সভা করে জবাবদিহিতা সভা।

সেখানে আমিও থাকবো, আপনারা কথা বলবেন। এক বছরে কাউন্সিলর কি কাজ করলো। আমি আপনাদের কি কাজ দিলাম আরও কি দরকার। আপনাদের সাথে সেই মত বিনিময় সভা আমরা করবো।  নির্বাচন করি আমরা সকলে মিলে কিন্তু যে কোন একজন পাশ হয়। পাশ করার পরে কারও সাথে আমাদের কোন রকমের বিভেদ রাখা উচিত না। কারণ সবাই কাজ করে গেছেন। সবার কাজই আপনারা দেখবেন। আপনারা যাকে পছন্দ করেন তাকেই বেছে নেন। পরপর তিনবার আপনারা আমাকে বেছে নিয়েছেন। সেই জন্য আমি আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি

২০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ শাহেনশাহ এর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর শিউলি নওশাদ, সাবেক কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন, স্থানীয় মসজিদ কমিটির সভাপতি ডা. শফিউল্লাহ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, ২১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহিন মিয়া, ২২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সুলতান আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা আমিরুল ইসলাম, মহানগর যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি কামরুল হুদা বাবু, যুবলীগ নেতা আব্দুল মোতালিব, শরীফ হিরা, হিমেল খান হিমু প্রমুখ।

আরোও পড়ুন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।