ফতুল্লায় রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

- Advertisement -

ফতুল্লায় রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ১৬ বছর বয়সী এক কিশোরীকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১২ মে) রাতে এ ঘটনায় অভিযুক্ত এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষনের ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেছে। অভিযুক্ত যুবকের নাম মজনু (২২)। সে জামালপুর জেলার মেলান্দহ থানার মানিকদা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে ও ফতুল্লা থানার মাসদাইর বড় কবরস্থান সংলগ্ন লালু মিয়ার ভাড়াটিয়া।

মামলায় উল্লেখ্য করা হয়, ফতুল্লার কেতাবনগরস্থ একটি প্রিন্ট কারখানায় কিশোরী মেয়েটি কাজ করতো। একই কারখানায় কাজ করতো গ্রেফতারকৃত মজনু। প্রায় সময় মজনু বাদীর মেয়েকে কু-প্রস্তাব দিতো।ফলে এক বছর পূর্বে ঐ প্রিন্ট কারখানা থেকে চাকুরী ছেড়ে দিয়ে কেতাবনগরস্থ অপর একটি প্রিন্ট কারখানায় চাকুরী নেয় কিশোরী। তারপরও কিশোরী কে যাতায়াতের পথে উত্যক্ত করতো। বুধবার রাত দশটার দিকে প্রিন্ট কারখানা ছুটি হলে বাসায় আসার সময় মজনু কিশোরী মেয়েকে রাস্তা থেকে মুখ চেপে ধরে জোড়পূর্বক টেনে হিচড়ে কেতাবনগরস্থ হক নামক এক ব্যক্তির মালিকানাধিন বাগানের ভিতর নিয়ে গিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আরিফ পাঠান জানান, অভিযুক্তকে বৃহস্পতিবার রাতে ফতুল্লা কেতাবনগর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত মজনু জোড়পূর্বক ধর্ষন করার কথা স্বীকার করেছে। কিশোরীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page