ঢাকাশনিবার , ৪ জুন ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এখন জাতির ক্রান্তিকাল চলছে–এড.তৈমূর

আবু বকর সিদ্দিক
জুন ৪, ২০২২ ৭:০১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিএনপির চেয়ারপার্সনের সাবেক উপদেষ্টা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক আহবায়ক অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসলে আমরা বাড়িঘরে শান্তিতে থাকতে পারবো। শত শত মামলা থেকে রক্ষা পাবো। এখন আমাদের দরকার ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া। আমি পূর্বেও আপনাদের পাশে ছিলাম এবং ভবিষ্যতেও আপনাদের সাথে থাকবো। সময় সাপেক্ষ যখন আমাকে ডাকবেন তখনই আমাকে পাশে পাবেন।শনিবার (৪ জুন) বিকেলে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নারায়ণগঞ্জ পরিবহণ শ্রমিকদল ও মহানগর শ্রমিক দলের উদ্যোগে শহরের ৩নং মাছঘাট এলাকায় এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, এখন দলে বিভাজন সৃষ্টি করার সময় না। যারা নেতৃত্বের লোভে দলে বিভাজন সৃষ্টি করতে চায় তাদের উদ্দেশ্য বলতে চাই এখন বিভাজন করার সময় না। দেশনেত্রী খালেদা জিয়া যখন ডাক দিবেন তখন সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে ঝাপিয়ে পড়বো। আমি দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দিয়েছি। আমার পদ পদবী থাকুক বা না থাকুক এটা কিছু আসে যায় না। আমি যখন নির্বাচন করেছি বিএনপির নেতাকর্মীরা আমার পাশে দাঁড়িয়েছে। আমি আপনাদের সাথে থাকবো। আমি খালেদা জিয়ার মুক্তি কামনা করি। আমাদের আন্দোলন সংগ্রমামের মাধ্যমে এদেশে তারেক রহমান ফিরবেন।

তিনি আরও বলেন, সবকথার শেষ কথা হলো আমরা একটা পরিবার। আমাদের এই পরিবারটাকে জন্ম দিয়েছেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান। দেশ ও জাতির যখন ক্রান্তিলগ্ন চলছিল যখন দুঃসময় চলছিল তখন তার আবির্ভাব হয়েছিল। আমি মেজর জিয়া বলছি সে সময় তিনি বলেছিলেন যখন অন্য কোনো নেতা অন্য কোথা দল জাতির জন্য দিকনির্দেশনা দেয়নি। এদেশের মানুষ তার থেকে প্রথম শুনেছে এদেশে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছে এবং যুদ্ধ সমাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত যুদ্ধ চালিয়ে যাবো। পরবর্তীতে ৭ নভেম্বর যখন কেউ দিক নির্দেশনা দেয়ার মতো ছিল না তখন তিনি জাতির পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যখন অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল তখন তাকে হত্যা করা হয়।

তৈমূর বলেন, এখনও জাতির ক্রান্তিকাল চলছে। এই দ্রব্যমূল্যে দাম কেন সরকারের নিয়ন্ত্রণে নেই? কারণ বাংলাদেশের টাকা যে মূল্য এটা মুদ্রস্ফীতি হওয়ার কারণে জিনিসপত্রের দাম হু হু করে বেড়ে চলছে। সরকার নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না এবং জনগণের এটা ক্ষয়ক্ষমতার বাইরে। বাংলাদেশ থেকে কোটি কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। এই পাচার কে করছে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকও বলে আওয়ামী লীগও বাংলাদেশ থেকে টাকা পাচার করছে। আওয়ামী লীগের আমলে বাংলাদেশ যে টাকা পাচার হয়ে অন্য কোনো সময়ে তা হয়নি। আমাদের নেতা তারের রহমানের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং মামলা করেছে কিন্তু সেটা প্রমাণ করতে পারেনি। এখন হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে এটা সবাই স্বীকার করে এবং আওয়ামী লীগও বলছে।

আরও পড়ুন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।