সোনারগাঁয়ে কবিরাজির নামে প্রতারণা

সোনারগাঁয়ে দিন দিন ভন্ড কবিরাজের তৎপরতা বেড়ে উঠায় ভুক্তভোগী রোগীরা প্রতিনিয়ত প্রতারিত হচ্ছে। উপজেলার কয়েক স্থানে আস্তানা করে নিরীহ মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা।ভুক্তভোগীরা জানায়, উপজেলার সাদিপুর গ্রামের মৃত আব্দুল বারীর প্রতারক ছেলে আবু সাদেক মোহাম্মদ এছহাক তার নিজ বাড়ীতে আস্তনা গড়ে তুলছে। তার এ আস্তানায় দুর দূরান্ত থেকে শত শত নারী-পুরুষ আসছে প্রতিনিয়ত।

এদের রোগ নির্মূলে দেয়া হচ্ছে আরবি হরফ লেখা কাগজ, তাবিজ, পানি পড়া, তেল পড়া, ডাব পড়া, ডিম পড়া, ঝাড় ফুঁকসহ হরেক রকম চিকিৎসা। ওসব ওষুধ বালিশের নীচে, গাছের ডালে, কোমরে, হাত-পায়ে বেঁধে রাখার নিয়ম করে দেন।এতে রোগীর অবস্থার ধরন বুঝে নগদ টাকাসহ গরু, মহিষ, খাসি, ছাগল, ভেড়া, মোরগ দাবী করে ভন্ড কবিরাজ। আবার রোগীর অর্থনৈতিক অবস্থা বুঝে প্রাইভেট চিকিৎসা দেয়ার কথা বলে লাখ টাকার বাজেট দেন। সাদীপুর গ্রামের ভন্ড কবিরাজ আবু সাদেক মোহাম্মদ এছহাকের কাছে আসা জনৈক নারী জানান, রোগ বালাই নির্মূলের জন্য অনেকেই এখানে আসে। তাই আমিও আসলাম। তার স্বামীর সাথে গড়মিল। তাই ৫ হাজার টাকা দিয়ে দাওয়া নিয়েছেন তিনি।

এলাকাবাসী জানান, একটি প্রভাবশালী মহলের শেল্টারে সে ভন্ড কবিরাজ সেজে অবাধে অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। তার এ ভন্ডামী ভালো চোখে দেখছে না এলাকাবাসী। ভন্ডামী করে এখন সে বিলাসবহুল গাড়ি হাঁকিয়ে চলাফেরা করেন। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। এ ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভুক্তভোগী রোগী ও এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ