পোশাক কারখানায় গণধর্ষণের শিকার নারী শ্রমিক

নারায়ণগঞ্জে পোশাক কারখানায় গণধর্ষনের শিকার হয়েছেন এক নারী শ্রমিক। এই ঘটনায় ধর্ষিতা নারী শনিবার (১১ জুন) বাদি হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন পুলিশ। ফতুল্লার ভুইগড়ের রঘুনাথপুর এলাকায় নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের পেছনে আলিফ ফ্যাশন নমের তৈরী পোশক কারখানার তৃতীয় তলায় ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গণধর্ষণের শিকার ওই গার্মেন্ট কর্মী তার পূর্ব পরিচিত লাকী নামের এক নারীর মাধ্যমে চলতি মাসের ২ জুন বৃহস্পতিবার জনৈক হান্নানের মালিকানাধিন আলিফ ফ্যাশন গার্মেন্টের পঞ্চম তলায় সুইং অপারেটর হিসেবে কাজে যোগদান করেন। কর্মে যোগদানের দু’দিন পর ৪ জুন শনিবার সকালে নিজ বাসা থেকে কর্মস্থল আলিফ গার্মেন্টে যায়। কারখানায় এলে জানতে পারেন কারখানায় বিদ্যুত নেই তাই সব কর্মীরা চলে গেছেন। তখন তিনি কারখানা থেকে বাড়ি ফেরার জন্য চলে আসতে গেলে কারখানার তৃতীয় তলায় পৌঁছালে কারখানার অপর শ্রমীক মোল্লা তাকে যেতে বারণ করে বলেন, এখনি বিদ্যুৎ চলে আসবে। এই কথা বলে তার গতিরোধ করে প্রথমে মোল্লা তার মুখ চেপে ধরেন। পরে সেখানে থাকা অজ্ঞাত এক ব্যক্তির সহায়তায় তাকে তুলে নিয়ে যায় কারখানার একটি কক্ষে। পরে পালাক্রমে তাকে গনধর্ষণ করেন ওই দুই জন। ধর্ষণ শেষে ভুক্তভোগী নারীকে এই ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখায়।

ঘটনার একদিন পর ধর্ষিতা নারী তার পূর্ব পরিচিত সেই লাকীকে ঘটনাটি খুলে বলে ও সাহায্য চায়। তবে লাকী তাকে এই বিষয় নিয়ে বাড়াবাড়ি না করে গোপন করতে পরামর্শ দেয়। তবে ভুক্তভুগী নারী তার স্বামীর সাথে আলোচনা করে কারখানার কর্তৃপক্ষকে ৭ জুন মঙ্গলবার বিষয়টি জানালে তারা কোন ব্যবস্থা না নিয়ে তাকে এই বিষয়ে নীরব থাকার পরামর্শ দেন। পরে সেই নারী কারখানা থেকে চকরী ছেড়ে দিয়ে বাড়ি পিরেন। এই ঘটনার পর ভুক্তভুগী নারীর স্বামীকে অভিযুক্ত মোল্লা মোবাইলে ফোন করে বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য হুমকি প্রদান করে। পরবর্তীতে ধর্সিতা নারী মোল্লার নাম উল্লেখ করে ও আরেক জন অজ্ঞাত আসামী করে ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ রিজাউল হক বলেন, গণধর্ষণের শিকার ভুক্তভুগী নারী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ