দেড় শতাধকি গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে

না’গঞ্জে পুলিশ-বিহারীদের সংঘর্ষে আহত ৫০: গ্রেফতার ৩২

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতারে অভিযানে নামে পুলিশ। বিশেষ এই অভিযানে ১২ জুন রবিবার রাতে অভিযান চালিয়ে ৩২ জনকে গ্রেফতার করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। সোমবার (১৩ জুন) এর প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিহারী ক্যাম্পের জনতা। পরে পুলিশ এসে তাদের বুঝিয়ে সড়ক মুক্ত করে দিতে বলায় উত্তেজিত জনতা চড়াও হয় পুলিশের উপর। এরপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ, শতাধিক রাউন্ড রাবার বুলেট ও পঞ্চশের অধিক টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. মশিউর রহমান। তবে পুলিশের কোন সদস্য আহত হয়নি বরে জানায় এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এর আগে সোমবার (১৩ জুন) ভোর ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত মসজিদে পুলিশের সাথে মারামারির ঘটনায় মামলা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদ জানিয়ে আদমজী সড়ক অবরোধ করে রাখে এলাকাবাসী। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে মুখোমুখি অবস্থানে যায় তারা। এ সময় উত্তেজিত জনতা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়লে পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে সড়ক অবরোধকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে অবরোধকারীরা আদমজী বিহারি ক্যাম্পের নতুনবাজার এলাকর নতন সড়কে অবস্থান নেয়। পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে গেলে সেখানেও দফায় দফায় পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়ায় উত্তেজিত জনতা। কয়েক দফা দু’পক্ষের মধ্যে পিকেটিং চলে। এতে আহত হয় অন্তত পঞ্চাশ জন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে একশত রাউন্ড রাবার বুলেট ও পঞ্চাশের অধিক টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ করে বেলা সাড়ে ১১ টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় পুলিশ।

এর আগে গতকাল রবিবার (১২ জুন) রাতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩২ জনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( অপরাধ ও অপারেশন) আমীর খসরু।এদিকে উত্তেজিত জনতাকে থামাতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন স্থানীয় কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি। পরে তিনি ও তার কর্মী সমর্থকরা মিলে সকলকে সেখান থেকে সরে যেতে বলেন। কাউন্সিলরের কথায় পরে তারা সেখান থেকে চলে যান।

সিদ্ধরগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. মশিউর রহমান মুঠোফোনে জানায়, মসজিদে পুলিশ সদস্য আজিজুল হককে হামলার ঘটনায় একটি বিশেষ অভিযানে যায় পুলিশ। রবিবার দিবাগত রাতে ওই এলাকা থেকে ৩২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর প্রতিবাদে আজ সকাল ৬টা থেকে তারা সড়কে অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে সেখান থেকে তাদের সড়িয়ে দিলে তারা পাশের গলিতে অবস্থান নিয়ে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। জনগনের জানমালের নিরাপত্তা রক্ষার্থে ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ একশত রাউন্ড রাবার বুলেট ও পঞ্চাশের অধিক টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ করে। তবে পরবর্তীতে আর কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি । গ্রেফাতরকৃত আসামিদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি ।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও অপারেশন) আমীর খসরু বলেন, মসজিদে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদি হয়ে মামলা করেন। সেই মামলার আসামিদের আইনের আওতায় আনতে গত কাল গভীর রাতে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩২ জনকে আটক করে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তারা সড়ক অবরোধ করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে বেশ কয়েক দফা তারা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়ায়। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আইন শৃঙ্খলা বিনষ্টকারীদের কোন ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারী দেন জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, পুলিশের ওপর মসজিদের মুসল্লিদের হামলার ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মির্জা শহীদুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। শনিবার (১১ জুন) রাতে ৫০ জনের নাম উল্লেখ করে আরও ১২০/১২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করা হয়। মামলার আসামিদের আইনের আওতায় আনতে রবিবার গভীর রাতে অভিযান চালায় পুলিশ। গ্রেফতার অভিযান ঠেকাতে স্থানীয়রা ঐক্যবদ্ধ হয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে ঢিল ছুড়তে থাকে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাবার বুলেট ও টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ করে। বেলা সাড়ে ১১টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রেণে আনে পুলিশ।

এর আগে গত শুক্রবার (১০ জুন) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক সৈয়দ আজিজুল হক মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন। বক্তব্যের এক পর্যায়ে তিনি বলেন, নবীকে নিয়ে কটূক্তি করা হয়েছে ভারতে। ভারতের বিষয় ভারতে থাকুক। এ নিয়ে আমরা নিজেদের দেশে বিশৃঙ্খলা না করি। এ কথা শুনে মুসল্লিরা ক্ষুব্ধ হলে প্রথমে তার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়।এক পর্যায়ে তারা জুতা নিক্ষেপ করে। পরে তার ওপর হামলা চালিয়ে গণধোলাই দেন মুসল্লিরা। এ সময় তাকে রক্ষা করতে গিয়ে দৈনিক মানবজমিনের স্টাফ রিপোর্টার ও মসজিদের সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন রবিন ও মসজিদ কমিটির সভাপতি হাকীম মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীনও আহত হয়। পরে তারা তাকে উদ্ধার করে মসজিদ কমিটির সভাপতির বাসায় নিয়ে গেলে সেখানেও হামলা চালায় উত্তেজিত মুসল্লিরা।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ