গলাচিপায় জমজমাট মাদক ব্যবসা

গলাচিপার মাদক ব্যবসায়ী বিলাই পলাশ ৫২ বোতল ফেন্সিডিলসহ সদর পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়ে জেলা কারাগারে থাকলেও মাসদাইর লিচুবাগের মাদকের ডন সদর এবং ফতুল্লা থানার বহু মামলার আসামী ঘোডা মামুনের ভাই মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ এর গলাচিপা মোড়ের জুর্পিটার গ্যারেজে ভিতরে ফেন্সিডিলে ব্যবসা চলছে জমজমাট। মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতারকৃত বিলাই পলাশের সোলম্যান পিচ্ছি মুকুলকে দিয়ে মাদক ব্যবসা করাচ্ছে মাদকের ডন প্রতিবন্ধী মাসুদ।

জানাযায় প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে শুরু হয় এই মাদক ব্যবসায়ীর ফেন্সিডিলের ব্যবসা তার মাদক আসে হাইফাই গাড়ী দিয়ে এতে বুঝার কোন উপাই নেই যে এই গাড়ী দিয়ে মাদক আসছে। তার দুই তিন জন সোলম্যান আছে যাদের প্রতি পাঁচ-সাতশ টাকা রোজে তাদের কাজ হল কাষ্টমার আসলেই গলাচিপা মোড়ের জুর্পিটার গ্যারেজে থেকে গিয়ে ফেন্সিডিল এনে ক্রেতার কাছে পোউছে দেওয়া তারা একটি ফেন্সিডিল বিক্রি করছে ২ হাজার থেকে ২২ শত টাকায় আর এই মাদকের টাকা দিয়ে মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ আগুুল থেকে ফুলে কলা গাছ বনে গেছে।

মাসদাইরের লিচুবাগের মাদকের ডন ফতুলা ও সদর থানার বহু মামলার আসামী ঘোডা মামুনের ভাই মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ ছিল ক্রস ফায়ারে নিহত শীর্ষ মাদক কারবারী বন্দুক শাহীনের মাদক বেচাকেনার ক্যাশিয়ার বন্দুক শহীন ক্রস ফায়ারে মারা যাওয়ার পর কয়েক মাস মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ কুমিল্লা শশুর বাড়ী চলে যায়। গলাচিপার পিচ্ছি বন্ধু মুকুলকে দিয়ে পুর দমে চালু করেছে মাদক ব্যবসা। এলাকাবাসী মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ গ্রেফতারের জোর দাবী জানিয়েছে।

আরো জানাযায়, এই মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ এর শশুর বাড়ী কুমিল্লার বর্ডার এলাকায় সেখান থেকে তার বউকে দিয়ে মাদক আনা নেওয়ারও অভিযোগ আছে। সম্প্রতি মাদক ব্যবসায়ী প্রতিবন্ধী মাসুদ তার মাদক ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে গলাচিপা মোড় এলাকায় একজনকে ৫০ হাজার টাকা হাওলাদ দিয়েছে এবং তার উকিলশশুর হয়েছে যাতে করে তার মাদক ব্যবসায় কেউ আর বাধা দিতে না পারে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ