আড়াইহাজারে স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ: গ্রেপ্তার ছাত্রলীগ নেতা

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের মামলায় সাতগ্রাম ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা অপুকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে আড়াইহাজার থানা পুলিশ। পরে বুধবার (২২জুন) দুপুরে তাকে নারায়ণগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনালে প্রেরণ করা হয়।গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষণ মামলার আসামী সাতগ্রাম ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াদ্দা গ্রামের শহিদের পুত্র।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, সাতগ্রাম ইউনিয়নের ইউনিয়নের দোয়াবৈ গ্রামের দীন মোহাম্মদের কন্যা আড়াইহাজারের পুরিন্দার কে এম সাদিকুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী (১৭) গত ১০ মে সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে অভিযুক্ত অপু তার গতিরোধ করে ওতার সাথে গাড়িতে যাওয়ার কথা বলে। পরে ওই শিক্ষার্থী তার কথা না শুনে স্কুলের দিকে রওয়ানা হলে তাকে নিজের ব্যবহৃত কালো প্রাইভেট কারে জোড়পূর্বক তুলে নেয়। এরপরে তাকে অপুর নোয়াদ্দাস্থ নিজ বাড়ীর কাছে নির্জন স্থানে নিয়ে গাড়ির ভিতরেই বলপূর্বক ধর্ষণ করে।ধর্ষিতা নারীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বিষয়টি গোপন রাখতে বলে ওই ধর্ষক। পরবর্তীতে বিয়ের কথা বললে তা অস্বীকার করে ও কাল ক্ষেপন করে অভিযুক্ত। এক পর্যায়ে ধর্ষিতা তার পরিবারকে সব কিছু খুলে বললে। পরে পারিবারিক ভাবে বিয়ের কথা বলা হলে অপু তাকে বিয়ে করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। পরবর্তীতে ধর্ষিতার পিতা দীন মোহাম্মদ বাদী হয়ে বুধবার সকালে আড়াইহাজার থানায় ধর্ষক অপুকে একমাত্র আসামী করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা রুজু হলে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আড়াই হাজার থানা পুলিশ। সঙ্গে সঙ্গে অপুকে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

ধর্ষণ মামলার সত্যতা স্বীকার বরে আড়াইহাজার থানার পুলিশ পরিদর্শক আজিজুল হক হাওলাদার বলেন, থানায় ধর্ষণ মামলা রুজ হয়েছে। এরপর পুলিশ পাঠিয়ে অবিযুক্ত অপুকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে নারায়ণগঞ্জ আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ