রূপগঞ্জে শিক্ষকের পিটুনিতে দুই ছাত্রী হাসপাতালে

রূপগঞ্জ বরপা হাজী নুর উদ্দিন আহম্মেদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর দুই ছাত্রী শিক্ষক জসিমের পিটুনিতে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (২ জুলাই) ১২টার দিকে উপজেলার তারাব পৌরসভার বরপা হাজী নুর উদ্দিন আহম্মেদ উচ্চ বিদ্যালয়ে ঘটে এ ঘটনাটি। ওই আহত শিক্ষার্থীরা হলেন, উপজেলার তারাব পৌরসভার বরপা বাগান বাড়ি এলাকার মৃত মোমেন ভূইয়ার মেয়ে তানজিলা আক্তার (১৪) ও একই উপজেলার তারাব পৌরসবার বরপা কর্নগোপ এলাকার রাসেল মিয়ার মেয়ে সামিয়া সিমি নিশী (১৩)।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শনিবার সাড়ে ১২টার দিকে বরপা হাজী নুর উদ্দিন আহম্মেদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ঈদের ছুটি ঘোষনা করেন শিক্ষক। এই আনন্দে ছাত্রীরা সবায় চুমকি মাখামাখি করে। পরে ওই দুই ছাত্রীকে শিক্ষক জসিম (৫৫), বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের রুমে খবর দিয়ে নিয়ে বাঁশের বেত দিয়ে এলোপাথারী ভাবে স্বজোরে বেত্রাঘাত করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম করে। পরে এসময় আঘাত সহ্য করতে না পেরে অজ্ঞান হয়েয়ে মাটিতে লুটে পড়ে যায়। পরে তাদেরকে ওই বিদ্যালয়েল অন্য শিক্ষকরা তাদেরকে স্থানীয় ইউএস বাংলা হাসপাতালে ভর্তি করে। অভিযুক্ত শিক্ষকদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ এফএম সায়েদ বলেন, শিক্ষার্থীকে মারপিটের একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) শাহ্ নুসরাত জাহান বলেন, খবর পেয়েছি হাসপাতালে শিক্ষা অফিসারকে পাঠিয়েছি তদন্ত করার জন্য। তদন্ত করার পর আনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ