ঢাকাশুক্রবার , ২২ জুলাই ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চকরীচুত্যের ভয় দেখিয়ে বার বার ধর্ষণ

আবু বকর সিদ্দিক
জুলাই ২২, ২০২২ ৫:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নারায়ণগঞ্জে একটি রপ্তানীমুখী পোষাক কারখানায় কর্মরত নারী নিরাপত্তারক্ষী তার সুপারভাইজার কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে ভূক্তভোগী নারী (৩৮) ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন। পরে তার অভিযোগের ভিত্তিতে ধর্ষক ইয়াকুব আলীকে গ্রেপ্তার করে ফতুল্লা থানা পুলিশ।শুক্রবার (২২ জুলাই) ভোরে নারায়য়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানাধীন মাসদাইর এলাকার শোভন গার্মেন্টে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চত করেছে ওই থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক সোহাগ চৌধুরী।

ফতুল্লা থানা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ইয়াকুব আলী দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর থানার দক্ষিণ শালন্দার মৃত আকুল শেখের পুত্র ও ফতুল্লা এলাকার রপ্তানীমুখি পোশাক শিল্পকারখানা শোভন গার্মেন্টের নিরাপত্তারক্ষীদের সুপার ভাইজার। ধর্ষণের ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়র করেন। পরে তার অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার বরাতে জানা গেছে, ধর্ষিতা ওই নারীর স্বামী স্থানীয় একটি হোটেলে কাজ করে এবং বাদী শোভন গার্মেন্টে নারী নিরাপত্তারক্ষী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। কর্মক্ষেত্রে তার সুপারভাইজার ইয়াকুব একে অপরের সহকর্মী হওয়ায় তাদের মধ্যে বেশ সখ্যতা গড়ে উঠে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সুপারভাইজার ইয়াকুব তাকে নানা সময়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলতেন ও তার শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেওয়ার চেষ্টা করতেন। গত তিন মাস পূর্বে কৌশলে প্রথম বারের মত তাকে ওই গার্মেন্টের পঞ্চম তলায় নিয়ে যেয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এবং বিষয়টি তাকে কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দিয়ে বলেন, কাউকে জানালে তাকে চাকুরীচুত্য করা হবে। হতদরিদ্র ওই নারী এরপর ওই নারীকে তিনি চাকরী হারানোর ভয়ে বিষয়টি ঘোঁপন করেন। পরবর্তীতে তাকে ফাঁদে ফেলে একই কায়দায় বার বার ধর্ষণ করেন ইয়াকুব। সর্বশেষ গত জুন মাসের ১৭ তারিখ শুক্রবার বেলা ২ টায় কারখানা ভবনের পঞ্চম তলায় জরুরী কথা আছে বলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সোহাগ চৌধুরী বলেন, ভূক্তভোগী ধর্ষিতার অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার ভোরে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক ইয়াকুব আলীকে গ্রেপ্তার করে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ওই ধর্ষণের শিকার হওয়া নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।