ঢাকাশনিবার , ১৩ আগস্ট ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

আসছে না’গঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি

আবু বকর সিদ্দিক
আগস্ট ১৩, ২০২২ ৫:৩৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ও বিএনপি’র চলমান আন্দোলন সংগ্রামকে আর বেগমান করতে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির কমিটি পুনর্গঠনের নিয়ে দলের ভেতরে এবং বাইরে আলোচনা শুরু হয়েছে। সভাপতি ও সেক্রেটারী পদ নিয়ে নানা বিশ্লেষণ চলছে। খুব দ্রুত নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি গঠন করা হবে। অভিজ্ঞ আর নবীনের সমন্বয়ে কমিটি করার প্রক্রিয়া চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক আগষ্টের শেষদিকে আসছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি কেন্দ্রীয় সূত্রে এমনটাই জানাগেছে ।

বিএনপির কেন্দ্রীয় সূত্রে জানা যায়, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এরইমধ্যে কমিটি করার কাজ অনেকদূর এগিয়ে নিয়েছেন। নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির শক্তিশালী কমিটি করতে দলের সিনিয়র নেতাদের কাছ থেকে পরামর্শ নিচ্ছেন। সবকিছু ঠিকঠাক চলতি আগষ্ট শেষের দিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নতুন কমিটি হতে পারে বলে জানান বিএনপির দায়িত্বশীল নেতারা।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সক্ষমতা নিয়ে নানা প্রশ্ন ওঠে। গত ২০২০ সালের ৩১শে ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ৪১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। বিগত ২০ মাস অতিবাহিত হলেও জেলা বিএনপির বিএনপির সম্মেলন তো দূরের কথা এখনও পর্যন্ত থানা ও পৌরসভার বিএনপির সম্মেলন সম্পন্ন করতে পারেনি। মূলত নিজেদের ভিতরে গ্ৰুপিং ও কোন্দলের কারণেই সম্মেলন করতে পারেনি। যদিও আড়াইহাজার উপজেলা ও দুটি পৌরসভা এবং সোনারগাঁ উপজেলা ও পৌরসভা কমিটি সম্মেলন সম্পন্ন করতে পারলেও রূপগঞ্জ, সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুয়া থানা কমিটির সম্মেলন নিয়ে চলছে নানা জটিলতা। নিজেদের ভিতরে কোন্দল ও গ্ৰুপিং এর কারনেই এসকল কমিটির সম্মেলন করতে পারছে না। যার ফলে কেন্দ্রের নির্দেশে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আহ্বায়ক কমিটি বাতিল করা হয়। আর বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির উপর আস্থা রাখতে পারছেন না কেন্দ্র। এসকল ব্যর্থতার কারণেই নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিকে ঢেলে সাজাতে চায় হাইকমান্ড। নতুন কমিটির দায়িত্বে আসতে এরইমধ্যে আলোচনায় রয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির একডজন সিনিয়র ও জুনিয়র নেতারা।

জেলা বিএনপির নতুন কমিটির আহ্বায়ক বা সভাপতি পদে হিসাবে দায়িত্ব পেতে চান জেলা বিএনপি’র নতুন কমিটিতে সভাপতি পদে আলোচনায় রয়েছে বিএনপি’র নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, সদস্য সচিব বা সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব চায় জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক নাছির উদ্দিন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাশুকুল ইসলাম রাজিব, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান রোজেল, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি মোশাররফ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন জেলা বিএনপির সাবেক সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন শিকদার।

একদিকে মহানগর বিএনপির কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ অন্য দিকে কমিটির সেক্রেটারি হলেন বহিষ্কার। আর মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি এড. আবুল কালাম অসুস্থ। নিজের ব্যক্তিগত অফিসকে মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করতে দিয়েছেন। অসুস্থ সভাপতি আবুল কালাম দলীয় বেশীরভাগ কর্মসূচিতেই থাকেন অনুপস্থিত। আর এখন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছিল যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টুকে। তিনি এর আগেও এটিএম কামাল বিদেশে অবস্থানকালে ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারির হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। সামনে আসছে বিএনপির ব্যাপক কর্মসূচি। মহানগর বিএনপির বর্তমান সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদককে দিয়ে সামনের কর্মসূচি গুলো পালন করা সম্ভব নয় বলে বিএনপির নেতাকর্মীদের সূত্রে জানা যায়।

তাই বর্তমান মহানগর বিএনপির মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে নতুন নেতৃত্বে নতুন কমিটি গঠনের জন্য বিএনপির হাইকমান্ডের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন। আর ঝিমিয়ে পড়া মহানগর বিএনপির কার্যক্রম নতুন নেতৃত্বে আবারও ঘুরে দাঁড়াবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টরা।মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক বা সভাপতি পদে দায়িত্ব চায় মহানগর বিএনপির বর্তমান কমিটির সভাপতি সাবেক এমপি এড. আবুল কালাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি আইনজীবী নেতা এড. সাখাওয়াত হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্ব চায় মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু। এছাড়াও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রয়েছেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আবুল কায়সার আশা।

আরও পড়ুন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।