নারায়ণগঞ্জে ঋণের চাপে যুবকের আত্মহত্যা

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ঋণ পরিশোধ করতে না পেরে গলায় ফাঁস নিয়ে সোহাগ (২৫) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (২৯ আগষ্ট) গভীর রাতে ফতুল্লা থানাধীন সস্তাপুরের গাবতলার মোড় এলাকায় নিজ বাড়ির সামেনর আম গাছের সাথে গলায় ফাঁস নেন তিনি। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ফতুল্লা থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ রিজাউল হক দিপু।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, এর আগে তিনি ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকার এ্যাবলুম ডিজাইন লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। চাকরি চলে যাওয়ায় ঋণ পরিশোধ করতে না পেরে মানসিক চাপে পরে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।নিহত সোহাগের মা সুফিয়া বেগম বলেন, সোহাগ আমাদের পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন। সোহাগের বাবা ঠিকাদারী ব্যবসা করতেন, যখন তিনি মারা যান তখন ওর বয়স ১০ বছর। চাকরি চলে যাওয়ায় সংসারের অভাব দূর করতে বিভিন্নজন থেকে ঋণ করে সোহাগ। নতুন করে চাকরি না হওয়ায় ঋণ পরিশোধ করতে পারছিলেন না। এদিকে পাওনাদাররা রোজ টাকার জন্য তাগিদ দিচ্ছিলেন, এই নিয়ে সোহাগ মানষিক চাপে ছিলো। পরে সকালে আম গাছে তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পাই।

এই বিষয়ে ফতুল্লা থানার পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ রিজাউল হক দিপু বলেন, আত্মহত্যার খবরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছিল। পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়া লাশ পরিবারকে দাফনের জন্য দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ