মৌমিতা বাসে যাত্রীর টাকা চুরি, চালক ও হেলপার গ্রেপ্তার : বাস জব্দ

অভিনব কৌশলে বমি করে কাপড় পরিস্কার করার ভান করে বাস যাত্রীর নিকট থেকে এক লাখ টাকা চুরি করে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনার চারদিন পর বুধবার বিকেলে লাখ টাকা চুরির সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে মৌমিতা বাসের (ঢাকা মেট্রো- ব-১৫-৬৬৫৪) চালক মো. ইমরান ও সহকারী মো. রতন মোল্লাকে  গ্রেপ্তার  করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। এ সময় ৃতাদের নিকট থেকে চুরি করা অর্থের দুই হাজার টাকা ও মৌমিতা বাসটি জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত ইমরান (২৯) ঢাকা সাভারের হেমায়েত পুর জনা বাড়ীর   মৃত আবু সাঈদের পুত্র ও একই এলডকার সোবহান মোল্লার পুত্র রতন মোল্লা (৩৬)। ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকা-নারায়নগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লা মডেল থানার রামারবাগস্থ খান সাহেব আলী স্টেডিয়াম গেইট সংলগ্ন রাস্তায়।


এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাস যাত্রী মুন্সিগঞ্জ জেলার সদর থানার দক্ষিণ মহাখালির মৃত আব্দুল মান্নানের পুত্র রনি হোসেন (৪২) বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।


মামলার বাদী ভুক্তভোগী রনি হোসেন জানান, তিনি শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে ঢাকা যাওয়ার জন্য চাষাড়া থেকে মৌমিতা বাসে চড়ে। বাসটি রামারবাগ খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম সংলগ্ন এলাকায় যাওয়া মাত্র বাসের এক যাত্রী তার গায়ে বমি করে। পরে তা পরিস্কার করার সময় কৌশলে বাদীর প্যান্টের পকেটে থাকা এক লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে নেয়। 

বিষয়টি সাথে সাথে তিনি টের পেয়ে বাস চালক ও সহকারী হেলপারকে বিষয়টি জানিয়ে বাসটির মূল দরজা লাগিয়ে দিতে বলে। কিন্ত তারা তা না করে বাসটি থামিয়ে দেয়। সে সময়  চোররুপী বাস যাত্রী বমি করা ব্যক্তিটি বাস থেকে নেমে দৌড়ে পালিয়ে যায়।  সে সময় সে চিৎকার করে দৌড়ে যাওয়া চোরকে ধরতে বললে ও তারা তাকে সাহায্য না করে বাস থেকে নামিয়ে দেয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক গোলাম মোস্তফা জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। জড়িত অপর আসামী কে গ্রেপ্তার চেস্টাসহ চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধারের চেস্টা করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ