ঢাকাবুধবার , ১৯ অক্টোবর ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

সিদ্ধিরগঞ্জের ঝোপের ভিতরে চোরাই তেলের ব্যবসা

আবু বকর সিদ্দিক
অক্টোবর ১৯, ২০২২ ৪:৪১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সিদ্ধিরগঞ্জের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নয়াআটি মুক্তিনগর উত্তর পাশে প্রকাশ্যে চলছে চোরাই জ্বালানি তেলের ব্যবসা। সড়কের পাশে সরকারি জায়গা দখল করে ঝোপের ভিতরে খুপড়ি ঘর নির্মাণ করে চোরাই তেলের ব্যবসা করছেন মো. সাইফুল ইসলাম বাবু নামে ডিবি পুলিশের এক সোর্স। জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে চলাচলরত বিভিন্ন কোম্পানি ও সরকারি প্রতিষ্ঠানের গাড়ির চালকরা সাইফুল ইসলাম বাবুর দোকানে গাড়ি থেকে চুরি করে জ্বালানি তেল বিক্রি করছে। প্রকাশ্যে দোকানের সামনে গাড়ি দাঁড় করিয়ে ১০’থেকে ১৫’লিটার পর্যন্ত তেল বিক্রি করছে চালকরা। বাজার দরের চেয়ে লিটার প্রতি ২০’থেকে ২৫’টাকা কমে তেল কিনে বাবু ভেজাল করে অন্য গাড়ি চালকদের কাছে বাজার দরের চেয়ে ৫’থেকে ১০’টাকা কমে বিক্রি করছে। ফলে এই দোকানটি তেল চোর গাড়ি চালকদের প্রিয় হয়ে উঠেছে।আশপাশের লোকজন জানায়, দূর দূরন্ত জেলার বিভিন্ন কোম্পানির পণ্য বহনকারী ট্রাক, কার্গো চালকরা এই দোকানে চুরি করে তেল বিক্রি করে বেশি। মাঝে মাঝে সরকারি বিভিন্ন অফিসের গাড়ি চালকরাও তেল বেচে। এমনকি থানা পুলিশের গাড়ি চালকদের এই দোকানে তেল বিক্রি করতে দেখা যায়। দিনে কম গাড়ি আসলেও রাতে গাড়ি আসে বেশি। দৈনিক কমপক্ষে আর্ধশতাধিক গাড়ির চালকরা চুরি করে তেল বিক্রি করতে আসে দোকানটিতে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঢাকার ডিবি পুলিশের সোর্স সাইফুল ইসলাম বাবু চোরাই তেলের দোকানটির মালিক। মুক্তিনগর এলাকার স্থানীয় কিছু লোকের সাথে তার সখ্যতা রয়েছে। সে সুবাধে সরকারি জায়গা দখল করে একটি খুপড়ি ঘর নির্মাণ করে গত ৬’মাস ধরে চোরাই তেলের ব্যবসা করছে। শিমরাইল এলাকায় ডেমরা সড়কের পাশেও তার আরেকটি চোরাই তেলের দোকান রয়েছে। ডিবি পুলিশের সোর্স হওয়ায় বাবু দাপটের সাথে তার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। প্রশাসন তার পকেটে বলে এলাকায় জাহির করে বেড়ায় বাবু। এবিষয়ে বাবুর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, যাদেরকে ম্যানেজ করা দরকার তাদের ম্যানেজ করেই ব্যবসা করছি।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।