ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৭ নভেম্বর ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

যৌতুক দিতে না পারায় গৃহবধুকে পাষন্ড নির্যাতন

আবু বকর সিদ্দিক
নভেম্বর ১৭, ২০২২ ৫:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক : বন্দরে স্বামীর দাবকিৃত ২ লাখ টাকা যৌতুক দিতে র্ব্যাথ হওয়ার জরে ধরে ১ সন্তানরে জননী লাবনী (২৫)কে অমানবকি ভাবে পটিয়িে বাড়ি থকেে তাড়য়িে দওেয়া অভযিোগ পাওয়া গছেে পাষান্ড যৌতুক লোভী স্বামী কাউছার এর বিরুদ্ধে। । এ ঘটনায় গুরুত্বর আহত গৃহবধূ লাবনী আক্তার বাদী হয়ে পাষান্ড যৌতুক লোভী স্বামী কাউছারকে আসামী করে বন্দর থানায় একটি লখিতি অভযিোগ দায়রে করছে। এর আগে বুধবার (১৬ নভম্বের) সকাল সাড়ে ৭টায় বন্দর উপজলোর কলাগাছিয়ার উইনিয়নের আলীসারদী এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে । স্থানীয়রা গুরুত্বর জখম অবস্থায় ভূক্তভোগী গৃহবধূকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরন করছে। অভিযোগ তথ্য সূত্রে জানা গছে, গত ৮ বছর র্পূবে বন্দর উপজলোর দক্ষনি ঘারমোড়া এলাকার রাসলে ময়িার ময়েে লাবনীর সাথে একই ইউনিয়নের আলীসারদী এলাকার বাচ্চু ময়িার ছলেে কাউছাররে সাথে পারিবারিক ভাবে ইসলামি শরিয়ত মোতাবকে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদরে সংসারে উমর কাইয়ুম নীরব নামে ৭ বছররে একটি পুত্র সন্তান রয়ছে। বিয়ের সময় মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে গৃহবধূ লাবনীর পিতামাতা যৌতুক লোভী স্বামী কাউছার ও তার পরবিাররে কাছে নগদ টাকা, আসভাবপত্র ও স্বর্ণালংকারসহ আড়াই লাখ টাকার মালামাল যৌতুক হসিবেে দয়ে। বয়িরে পর থকেে কাউছার শ্বশুড় বাড়ী থকেে মোটা অংকরে যৌতুক আনার জন্য ভূক্তভোগীকে মারধর করে আসছিল । ভূক্তভোগী গৃহবধূ সন্তানের ভবিষৎ এর কথা চিস্তা করে নির্যাতন সহ্য করে আসছিল। এর ধারাবাহকিতায় গত বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় পাষান্ড স্বামী কাউছার তার স্ত্রী লাবনী কাছে আবারও ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবি কর। এতে গৃহবধূ যৌতুক দিতে অপরগতা প্রকাশ করলে ওই সময় পাষান্ড স্বামী লাঠিসেটাি দিয়ে বেদম ভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।। এ ঘটনায় গৃহবধূ স্থানীয় ভাবে বিচার চেয়ে না পেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে পাষান্ড যৌতুক লোভী স্বামী কাউছারকে আসামী করে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযাগ পেয়ে বন্দর থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।