ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৪ নভেম্বর ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

মোবাইল চুরি আখ্যা দিয়ে ডেকেরেটার শ্রমিককে পিটিয়ে জখম

আবু বকর সিদ্দিক
নভেম্বর ২৪, ২০২২ ৪:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বন্দরে মোবাইল চুরি আখ্যা দিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে বাবু (২২) নামে এক ডেকরেটার শ্রমিককে বেদম ভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে সন্ত্রাসী অটোরিক্সার গ্যারেজ মালিক সানী মোল্লাসহ তার সাঙ্গপাঙ্গদের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) দুপুর ১২টায় বন্দর থানার ১৯ নং ওয়ার্ডের মদনগঞ্জ বকুলতলাস্থ ওন্ডারার্স ক্লাবের ভিতরে এ নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটে। লোক মারফতে সংবাদ পেয়ে আহত ডেকরেটার শ্রমিকের মা ও স্থানীয় কাউন্সিলর মোখলেস চৌধূরী দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে মদনগঞ্জ ওয়ান্ডারার্স ক্রঅবের ভিতরে বন্দিশালা থেকে ওই ডেকরেটার শ্রমিককে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনায় আহত ডেকরেটার শ্রমিকের মা হামিদা খাতুন বাদী হয়ে সন্ত্রাসী গ্যারেজ মালিক সানী মোল্লা,আকাশ ও ইতিহাসসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ্য করে ঘটনার ওই দিন দুপুরে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। আহত ডেকেরেটার শ্রমিকের মা হামিদা খাতুন জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে ১২টায় মদনগঞ্জ বকুলতলাস্থ মোল্লাবাড়ী এলাকার হাসান মোল্লার মাদক সেবী ছেলে সানী মোল্লা, মদনগঞ্জ নয়াপাড়া এলাকার আশাদুল্লাহ মিয়ার ছেলে আকাশ একই এলাকার বাসেদ মিয়ার ছেলে ইতিহাস জমির মিয়ার ছেলে রবিন ও একই এলাকার সোহানসহ অজ্ঞাত নামা ৪/৫ বখাটে যুবক আমার ছেলে ডেকেরেটার শ্রমিক বাবুকে মোবাইল চুরি আখ্যা দিয়ে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে উল্লেখিতরা আমার ছেলে বাবুকে স্থানীয় ওয়ান্ডারার্স ক্লাবে আটক রেখে লোহার রড ও হকিস্ট্রিক দিয়ে এলাপাথারী ভাবে পিটিয়ে রুক্তাক্ত জখম করে উল্রেীখত ক্লাবে আটক রাখে। লোক মারফতে খবর পেয়ে আমি ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোখলেছ চৌধুরী দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে ওয়ান্ডরার্স ক্লাবের ভিতরে বন্ধীশালা থেকে আমরা ছেলেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করি। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলে অভিযোগ পেয়ে বন্দর থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।