মসজিদের নামে নুরের চাদাবাজি

ছবি-৮টাকা না দিলে মারধর ও এলাকায় ঢুকতে দেয়না সিদ্ধিরগঞ্জের পাইনাদীতে নূর হাবিবকে টাকা দিতে হয় ক্ষুদে ব্যবসায়ীদের   সিদ্ধিরগঞ্জের পাইনাদী নতুন মহল্লা এলাকায় নূর হাবিবের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে ভাসমান ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। এলাকায় ভ্যান গাড়ি নিয়ে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা তরিকরকারিসহ বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রি করতে গেলেই নূর হাবিবকে টাকা দিতে হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, পাইনাদী ধনুহাজী বাড়ীর মো: নূর হাবিব দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ভাসমান ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অনৈতিকভাবে আদায় করছে। তাকে টাকা না দিলে এসব ব্যবসায়ীদের মারধর ও এলাকায় ঢুকতে দেয়না। চাঁদা না দেওয়ায় বহু তরিদরকারি ও মাছ বিক্রেতা নূর হাবিবের মারধরের শিকার হয়েছে। এসব ভাসমান ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে নূর হাবিব দৈনিক প্রায় আড়াই থেকে ৩ হাজার টাকা জোর পূর্বক হাতিয়ে নিচ্ছেন।  ভ্যানগাড়ি দিয়ে তরকারি বিক্রেতা জালাল উদ্দিন জানান, পাইনাদী এলাকায় গাড়ি নিয়ে গেলেই নূর হাবিবকে ৫০ টাকা দিতে হয়। একই কথা বলেন ফেরি করে মাছ বিক্রিতা বিল্লাল হোসেন।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার একজন বাসিন্দা জানান, নূর হাবিবের এ অনৈতিক কর্মকান্ডের বিষয়ে কয়েকজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী অভিযোগ করলে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে জানানোর পরামর্শ দেই। চাঁদাবাজির বিষয়ে নূর হাবিব বলেন, পাইনাদী এলাকার বায়তুল আমান জামে মসজিদের উন্নয়নের জন্য এসব ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে কিছু টাকা নেই। যা মসজিদ উন্নয়নে ব্যয় করা হচ্ছে। তবে মসজিদ কমিটির সভাপতি হাজী ইউনুছ মিয়া বলেন, মসজিদের উন্নয়নের জন্য ভাসমান ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা আদায়ের কথা ভিত্তিহীন। তবে নূর হাবিব কোন চাঁদাবাজি করে কিনা আমার জানা নেই। মসজিদ উন্নয়নের জন্য তিনি কোন টাকা আমার জানা মতে দিচ্ছেন না।  এবিষয়ে নাসিক ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার ইসলাম বলেন, কয়েকজন ব্যবসায়ী আমার কাছে এসেছিল। নূর হাবিব নামে এক লোক তাদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন বলে অভিযোগ জানায়। আমি বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছি।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ