বন্দরে বিস্ফোরন মামলায় ৩ বিএনপি কর্মী গ্রেপ্তার

 বন্দরে ২৩ নং ওয়াডের্র আওয়ামীলীগের কার্যালয় ভাংচুর ও ককটেল বিস্ফোরন মামলায় ১৯নং ওয়ার্ড যুবদল নেতা হুমায়ন কবিরসহ ৩ বিএনপি কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে বন্দর থানা পুলিশ। গত শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) রাতে ও শনিবার (৩ ডিসেম্বর) সকালে বন্দরে পৃথক দুইটি স্থানে অভিযান চালিয়ে এদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। যার মামলা নং ২৬(১১)২২। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো বন্দর থানার ১৯নং ওয়ার্ডের মদনগঞ্জ লক্ষার চর এলাকার মহিউদ্দিন মিয়ার ছেলে হুমায়ন কবির (৩২) বন্দর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের কামতাল এলাকার মৃত জাবেদ খন্দকারের ছেলে বিএনপি কর্মী ওয়াদুদ (৪৪) ও বন্দর ২৬নং ওয়ার্ডের রামনগর এলাকার নাছির মিয়ার ছেলে রাকিব (২৭)। গ্রেপ্তারকৃতদের শনিবার দুপুরে ওই মামলায় আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ। উল্লেখ্য, গত ১৮ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বন্দর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও মহানগর বিএনপি নেতা আলহাজ¦ আতাউর রহমান মুকুলের নেতৃত্বে বন্দর থানা বিএনপি সাংগঠনিক সম্পদক নূর মোহাম্মদ পনেছ, মহানগর বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান দুলাল, বন্দর থানা যুবদল নেতা নাজমুল হক রানা, কাজী আনিছসহ ২৪ জন এজাহারভূক্ত আসামী ও আরো অজ্ঞাত নামা ২৫/৩০ জন বিএনপি নেতাকর্মী একজোট হয়ে ধারালো ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মহানগর বিএনপি নেতা আতাউর রহমান মুকুলের হুকুমে উল্লেখিত এজাহারভ’ক্ত আসামীরা বন্দরে নবীগঞ্জ কিলেরমোড় এলাকায় আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কার্যালয়ে আসভাবপত্র ভাংচুর করে । ওই সময় হামলাকারিদের থামাতে গিয়ে ছাত্রলীগ কর্মী সোহেল ও কাউছার মারাত্মক ভাবে আহত হয়। হামলাকারিরা এক পর্যায়ে  আসভাবপত্র ভাংচুর করে দেড় লাখ টাকা ক্ষতি সাধনসহ কার্যালয়ে টেবিলের ড্রয়ারে থাকা ব্যবসায়ী কাজের নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ৩টি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হলে পুলিশ গত শুক্রবার বিভিন্ন স্থানে অভিান চালিয়ে ৩ বিএনপি কর্মীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।এ ছাড়াও সম্প্রতি সময়ে এ মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে নূর মোহাম্মদ পনেছসহ আরো ৪ নেতাকর্মী উচ্চ আদালত থেকে জামিন লাভ করেছে।  

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ