টার্গেট ১০ ডিসেম্বর, ঘর ছাড়া নারায়ণগঞ্জ বিএনপি

টার্গেট ১০ ডিসেম্বর, ঘর ছাড়া নারায়ণগঞ্জ বিএনপি টার্গেট আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির গণসমাবেশ। এই সমাবেশকে ঘিরে উজ্জীবিত ছিল নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতা-কর্মীরা। রীতমত নানা কর্মসূচির মাধ্যমে রাজপথ দখল করে রেখেছিল। বিন্তু হঠাৎ করে দলটির নেতা- কর্মীদের মধ্যে নতুন করে বিরাজ করছে মামলা ও গ্রেপ্তার আতঙ্ক। নারায়ণগঞ্জের সাত থানায় বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা মামলায় ইতিমধ্যে প্রায় ৫০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নতুন ও পুরাতন মামলায় নেতা-কর্মীদের বাড়িঘরে দিনে ও রাতে তল্লাশি চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। চালাচ্ছেন গণ গ্রেপ্তার। এতে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে পরিবারগুলো। ফলে গ্রেপ্তার আতঙ্কে ঘরছাড়া নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা।এদিকে গত ১৭ নভেম্বর থেকে ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেলার সাতটি থানায় নতুন করে মোট ১১টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিস্ফোরক আইনে করা প্রতিটি মামলাতেই বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা আসামি হয়েছেন। এর মধ্যে ৮টি মামলার বাদী পুলিশ এবং দু’টি মামলায় ছাত্রলীগের দুই কর্মী ও একটিতে শ্রমিক লীগের নেতা বাদী হয়েছেন। বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশকে  কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি যাতে ফের সংগঠিত হতে না পারে সেজন্য নতুন করে মামলা ও গ্রেপ্তারের কৌশল নেয়া হয়েছে। গণসমাবেশকে বানচাল করতেই নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের সক্রিয় ও গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের পাশাপাশি জাতীয়তাবাদী সমর্থক পেশাজীবীদেরও মামলা দিয়ে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অসংখ্য নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করছে। নেতা-কর্মীদের আশঙ্কা-সরকার পতনের চূড়ান্ত আন্দোলন শুরুর আগে বাড়তে পারে আরও গ্রেপ্তার ও মামলা।বিশেষ করে ঢাকায় বিভাগীয় গণসমাবেশের আগে এ মাত্রা বাড়ানো হয়েছে। নতুন মামলার পাশাপাশি পুরোনো মামলায় ‘অজ্ঞাতনামা’ আসামির স্থানে নাম ঢুকিয়ে তৃণমূলের সক্রিয় নেতাদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।এ প্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, ঢাকার গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে প্রতিদিন বিএনপির নেতা-কর্মীদের বাড়ি বাড়ি অভিযান চালাচ্ছে আওয়ামী পুলিশ। সারাদেশে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়ে গেছে। গণসমাবেশকে ঘিরে উজ্জীবিত নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতা-কর্মীরা।  বিএনপির গণজোয়ার দেখে সরকার দিশেহারা। ক্ষমতায় টিকে থাকতে ফের মামলা, হামলা ও গ্রেপ্তারকে অস্ত্র হিসেবে নিয়েছে। সমাবেশকে বানচাল করতে ক্ষমতাসীনরা নতুন করে মিথ্যা ও যড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে নেতা-কর্মীদের চাপে  রাখছেন এবং বাড়িঘরে সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে গণগ্ৰেপ্তার চালাচ্ছে। আমাদের অনেক নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সকল মিথ্যা মামলা নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার ও হয়রানি  না করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি । আর অবিলম্বে গ্রেপ্তারকৃত নেতা কর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি জানাচ্ছি।তিনি আরও বলেন, এদেশের মানুষ তাদের ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে জন্য রাজপথে নেমে এসেছে। তাদেরকে আর ঠেকানো যাবে না। এসরকার পতন নিশ্চিত করেই তারা ঘরে ফিরবে। কোনো বাধাই ১০ ডিসেম্বের গণসমাবেশের নেতা-কর্মীদের আটকাতে পারবে না। ইনশাল্লাহ এসকল মামলা হামলা ও গণ গেপ্তার উপেক্ষা করেই মহানগর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে ঢাকার গণসমাবেশে হাজির হবো।এ প্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে এসব মামলা ‘গায়েবি’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির গণসমাবেশকে ঠেকাতে সারাদেশেই পুলিশ বিএনপি নেতা-কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে হানা দিচ্ছে। আওয়ামী লীগ বিরোধীদলকে এইভাবে দমন করতে চাচ্ছে। কিন্তু কোনকিছুতেই কাজ হবে না। বিভাগীয় সমাবেশগুলোর মতো বিএনপির ঢাকার গণসমাবেশও সফল হবে।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১০ ডিসেম্বর ঢাকার গণসমাবেশকে সফল করতে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বিএনপি। গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে নতুন করে মামলায় আসামিও করা হচ্ছে বিএনপি নেতা-কর্মীদের। এভাবেই পুরোনো মামলার সঙ্গে নতুন নতুন মামলার জালে আটকে যাচ্ছে বিএনপি নেতা-কর্মীরা। অজ্ঞাতনামা দেখিয়ে মামলা হওয়ায় গ্রেপ্তার এড়াতে অনেকেই সতর্ক অবস্থানে চলে গেছেন। যাদের নামে মামলা করা হয়েছে এবং যাদের নাম আসেনি সবাই নিজ বসতবাড়ি থেকে সরে থাকছেন বলে জানা গেছে। নেতা-কর্মীদের ধারণা তাদের মধ্যে আতঙ্ক বা ভয়ভীতি সৃষ্টি করতে নানা কৌশল নিতে পারে সরকার ও ক্ষমতাসীন দল।জানতে চাইলে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের একাধিক নেতা বলেন, দলের ‘প্রত্যেক নেতা-কর্মীর’ বিরুদ্ধে শত শত মামলা। সরকারের নির্যাতন-নিপীড়নের দলের নেতা-কর্মীরা বিপর্যস্ত। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মারমুখী আচরণে নেতা-কর্মীরা একটু নিরাপদ দূরত্বে গ্রেপ্তার এড়িয়ে চলতে হচ্ছে। তবে নেতা-কর্মীদের মনোবল অটুট আছে। তারা যেকোনো ত্যাগ শিকারে প্রস্তুত। সকল বাধা ও মামলা উপেক্ষা করে ১০ ডিসেম্বর গণসমাবেশকে সফল করবে।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ