না.গঞ্জে ট্রেন চলাচল বন্ধে বিপাকে যাত্রীরা, গুণছে বাড়তি খরচ 

প্রতিদিন সকাল সকাল বের হয়ে কর্মস্থল রাজধানীতে যেতে হয় অমিত আশরাফের। কম টাকায় দ্রুত সময়ে যানজট বিহীন পথ হিসেবে বেছে নিয়েছে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথ। নিত্য দিনের মতো স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকে ট্রেনের অপেক্ষায়। কিন্তু নির্দিষ্ট সময় পার হয়ে গেলে আশপাশের লোকজন থেকে জানতে পারে, আজ থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ফতুল্লা স্টেশনের দাঁড়িয়ে থাকা চাকরিজীবি অমিত আশরাফের সাথে কথা হয় । তিনি জানান, প্রতিদিন ট্রেনে যাতায়াত করা হয়। কর্মস্থল ঢাকায়। ট্রেনে যাতায়াতে ভীর হলেও স্বল্প সময়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাওয়া যায়। ভাড়াও অনেকটা সেভ হয়। কিন্তু আজকে থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ বিষয়টি মাথায় ছিলো না। যার ফলে ঘুরে সড়ক পথে ঢাকায় যেতে হচ্ছে। ভাড়াও গুনতে হচ্ছে দিগুন। এদিকে, রবিবার (৪ ডিসেম্বর) থেকে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথে ট্রেন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এক বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পথে আগামী সাড়ে তিন মাস ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। পদ্মা সেতু রেল সংযোগ ও ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রেলপথ উন্নয়ন প্রকল্পের কাজের জন্য ট্রেন চলাচল বন্ধের এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  সরেজমিন ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ট্রেন চলাচল অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জ স্টেশন, চাষাঢ়া স্টেশন ও ফতুল্লা স্টেশনে সহস্রাধিক যাত্রীর ভীর লক্ষ্য করা গেছে। কেউ ভুলে কেউ না জেনে চলে এসে স্টেশনের।ট্রন চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। ট্রেনে ১৫ টাকায় ঢাকায় যেতেন তারা। এখন অন্তত ৬৫ টাকা দিয়ে বাসে চড়ে তাদের ঢাকায় যেতে হচ্ছে। এ নিয়ে যাত্রীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সবশেষ শনিবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটের নির্ধারিত ট্রেনটি ২০ মিনিট দেরিতে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। তথ্যটি নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় রেলস্টেশনের মাস্টার কামরুল খান। তিনি জানান, সকাল থেকেই স্টেশনে যাত্রীদের ভীর ছিলো। সবাইকে আমরা বার বার বলেছি যে, আজ থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ। এখনো আমাদের কোন নির্দেশনা দেয়নি, কবে থেকে ট্রেন চলাচল চালু হবে। ইতোমধ্যে কয়েকদিন আগে থেকেই গণমাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় রেল চলাচল বন্ধের ঘোষণার নিউজ প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, বেশীর ভাগ নিম্ম আয়ের যাত্রীদের ক্ষোভ, ১৫টাকায় তারা ঢাকায় যেতে পারতো। কিন্তু ট্রেন বন্ধের কারণে তারা অতিরিক্ত ভাড়া গুনছে। আমাদের কাছে বলা হয়েছে সাময়িক সময়ের জন্য ট্রেন বন্ধ করা হয়েছে তবে কবে নাগাদ আবার চালু করা হবে এ বিষয়ে এখনো কোন নির্দেশনা আমাদের জানানো হয়নি।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ