বন্দরে চোরাই মিশুকসহ চোর মুন্না আটক

বন্দরে চোরাই মিশুকসহ চোর মুন্না আটক, পুলিশে সোর্পদ বন্দরে মিশুক চুরি করে পালানোর সময় মুন্না (২৫) নামে এক মিশুক চোরকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে স্থানীয় জনতা। ওই সময় জনতার উপস্থিতি টের পেয়ে কৌশলে পালিয়ে গেছে অজ্ঞাত নামা আরো এক চোর।  সোমবার (৫ ডিসেম্বর) রাত ১০টায় বন্দর থানার ফরাজিকান্দাস্থ বীরমুক্তিযোদ্ধা নাসিম ওসমান তৃতীয় শীতলক্ষা সেতুর টোল প্লাজার সামনে থেকে চোরাইকৃত মিশুক গাড়ীসহ ওই চোরকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করা হয়। আটককৃত মিশুক চোর মুন্না গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানি থানার  গোপিনাথপুর এলাকার মৃত আরজ আলী মিয়ার ছেলে। বর্তমানে আটককৃত চোর মুন্না ফতুল্লা থানার তল্লা পোড়া মসজিদ রেললাইন এলাকায় ভাড়াটিয়া হিসেবে দীর্ঘ দিন ধরে বসবাস করে আসছে। এ ঘটনায় মিশুক মালিক জাহিদ আল আমিন বাদী হয়ে আটককৃত মিশুক চোর মুন্নাসহ অজ্ঞাত নামা এক চোরকে আসামী করে বন্দর থানায় একটি চুরি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ১২(১২)২২। পুলিশ আটককৃত চোরকে উল্লেখিত মামলায় মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করেছে।মামলা সূত্রে জানা গেছে, বন্দর থানার ২১নং ওয়ার্ডের শাহীমসজিদ এলাকার মৃত রাজা মাষ্টারের ছেলে জাহিদ আল আমিন দীর্ঘ দিন ধরে মিশুক গাড়ী ব্যবসা করে আসছে। প্রতিদিনের ন্যায়  গত সোমবার ( ৫ ডিসেম্বর) সকালে বন্দর রুপালী  আবাসিক এলাকার ভাড়াটিয়া মিশুক গাড়ী চালক বিল্পব (২৫) কাজের উদ্দেশ্যে মিশুক নিয়ে বাহিরে যায়। পরে ওই দিন রাত সাড়ে ৯টায় মিশুক চালক বিল্পব মিয়া বন্দর থানার ফরাজিকান্দাস্থ বীরমুক্তিযোদ্ধা নাসিম ওসমান তৃতীয় শীতলক্ষা সেতু টোল প্লাজার সামনে মিশুক গাড়ী রেখে চা খাওয়ার জন্য দোকানে যায়। ওই সময় মিশুক চোর মুন্নাসহ  অজ্ঞাত নামা আরো এক চোর উক্ত মিশুক গাড়ীটি চুরি করে পালানোর চেষ্টাকালে জনতা মুন্নাকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে।   

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ