দুই তেল চোর গ্রেপ্তার হলেও মূলহোতা অধরা 

সিদ্ধিরগঞ্জের দুই তেল চোর বন্দরেগ্রেপ্তার হলেও মূলহোতা অধরা নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের দুই তেল চোর ২ হাজার লিটার ফানির্স অয়েলসহ বন্দর থেকে ডিবি পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হলেও মূলহোতা নাসিক ৬নং ওয়ার্ডের এসও রোড মন্ডলপাড়ার জাবেদ (৩৪) রয়েছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। সে ওই এলাকার জাকির হোসেনের ছেলে।ডিবির হাতে গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-সিদ্ধিরগঞ্জ কলাবাগ মুন্সিপাড়া এলাকার মো. আলীর ছেলে মো শাকিল আহম্মদ (৩৫) ও সিদ্ধিরগঞ্জ গোদনাইল এসও রোড এলাকার চান মিয়ার ছেলে মো. বাদল (৩৫) । ডিবির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতিকুর রহমান ভূঁইয়া জানান, দীর্ঘদিন যাবত তেল চোর চক্রের সদস্যরা বন্দর বালুচর এলাকায় নদীর পাড়ে কালা তেল মজুদ করে বিক্রি করে আসছিল। ৪ ডিসেম্বর ভোর রাতে ঢাকা মেট্রো-ঢ-৪১-০১৪৭ নম্বরে একটি ট্যাংকলরি দিয়ে তেল পাচারকালে দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এবং জব্দ করা হয় ২ হাজার লিটার কালা তেল (ফার্নিস অয়েল)। এদিকে প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, নাসিক ৬নং ওয়ার্ডের এসও রোড মন্ডলপাড়ার জাকির হোসেন এর পুত্র জাবেদ (৩৪) চোরাই তেল চুরি চক্রের সংঘবদ্ধ সক্রিয় সদস্য। দীর্ঘদিন যাবত  চক্রটি বন্দর মদনগঞ্জ লঞ্চঘাট এলাকায় চোরাইভাবে ফার্নিস (কালা তেল) ব্যবসা করে আসছে। তারা বিভিন্ন তেলের ডিপো হতে এবং চোরাই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে নদী দিয়ে চলমান বিভিন্ন জাহাজ হতে সুকৌশলে তেল চুরি করে চোরাই তেলের ব্যবসা করে আসছে। তাদের এই চোরাই তেল নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন তেল ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করা হয়। চক্রটি পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ জব্দকৃত ট্যাংকলরীর (ঢাকা মেট্রো-ঢ-৪১-০১৪৭) মাধ্যমে মহাসড়কে চলাচলরত ট্রাক/লরীর তেলের ট্যাংকি হতে গোপনে তেল চুরি করে আসছে। জব্দকৃত ট্যাংকলরীর মালিক হচ্ছে চক্রের সদস্য জাবেদ। তাকে আইনের আওতায় আনতে পারলে তেল চুরির চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ