শহরে জলকামান মোতায়েন

নারায়ণগঞ্জে নাশকতার আশঙ্কায় সড়ক-মহাসড়কে পুলিশের তল্লাশি

নারায়ণগঞ্জে নাশকতার আশঙ্কায় সড়ক-মহাসড়কে পুলিশের তল্লাশি, শহরে জলকামান মোতায়েন ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে নাশকতার আশঙ্কায় সড়ক-মহসড়কে দ্বিতীয় দিনের মত তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। মূল শহরের চাষাঢ়া মোড়ে জলকামান মোতায়েন করা হয়েছে। বিশেষ নিরাপত্তায় দক্ষিনাঞ্চলের ৩৭ টি জেলার প্রবেশদ্বার হিসাবে পরিচিত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কাঁচপুর সেতুর দু পাড় ও মহাসড়কের মুগড়াপাড়া মেঘনা এলাকায় বসানো হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চেক পোস্ট। এছাড়াও  নারায়ণগঞ্জ শহরের  ঢাকা- নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড ও পুরাতন পাগলা সড়কের মোড়ে মোড়ে বসানো হয়েছে চেক পোস্ট।  এসব জায়গায় যাত্রীবাহি বাস থেকে শুরু করে সকল প্রকাশ যানবাহবেন চালানো হচ্ছে তল্লাশী। সরেজমিনে বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় দেখা গেছে, তল্লাশী চৌকি পার হওয়ার সময় যাত্রী ও চালকদের জেরা করা হচ্ছে। বাসে যাত্রীদের ব্যাগ এবং ব্যক্তিগত গাড়ির ভেতর ও পেছনে ব্যাকডালা তল্লাশি করতে দেখা গেছে পুলিশ সদস্যদের। সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক মোড় ছাড়াও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর সেতুর পূর্বপাশে সোনারগাঁ থানা পুলিশের একটি এবং উত্তর পাশে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের প্রবেশমুখে হাইওয়ে পুলিশের দলকে দেখা গেছে। সন্দেহজনক মনে হলে গাড়ি থামিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছেন তারা।  বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রীদেরও নামিয়ে সময় নিয়ে শরীরজুড়ে তল্লাশি করছেন পুলিশ সদস্যরা। সঙ্গে থাকা মোবাইলও চেক করছেন তারা। যাদের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হচ্ছে অথবা যাদের মোবাইলে বিএনপি কিংবা সরকারিবিরোধী কোনো বিষয় পাওয়া যাচ্ছে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।  এ ছাড়াও কাচঁপুর হাইওয়ে থানার ট্রাফিক সার্জেন্ট সাইফুলের নেতৃত্বে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুগড়া পাড়া মেঘনা এলাকায় চেকপোস্ট বসিয়ে সন্দেহজনক মনে হলেই তাকে তল্লাশি করছে। এছাড়া প্রাইভেটকার, সিএনজি, রিকশাসহ দূরপাল্লার বাসগুলোকে থামিয়ে ভালো করে তল্লাশি করা হচ্ছে।শিমরাইল হাইওয়ে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর টিআই শরফুদ্দীন জানান, এস আই শফিক এর নেতৃত্বে চিটাগাংরোড শিমরাইল মোড়  এলাকায় চেক পোস্ট বসিয়ে দুরপাল্লার পরিবহন থামিয়ে তল্লাশী করা হচ্ছে।কাচঁপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস.এম আবুল কাশেম আজাদ জানান, আমরা মহাসড়কে সবসময় তৎপর আছি থাকব । মহাসড়কে কোন প্রকার নাশকতা সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে না। সেজন্য আমরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মুগড়া পাড়া মেঘনা এলাকায় চেকপোস্ট বসিয়ে পরিবহন গুলো তল্লাশি করছি।সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মশিউর রহমান পিপিএম বার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পেরেছি, মহাসড়কে নাশকতা হতে পারে। সেজন্য আমরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মৌচাক, চিটাগাংরোড এলাকায় চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনগুলো তল্লাশি করা হচ্ছে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এলাকায় মহাসড়কে এখন পযর্ন্ত কোন ধরনে বিশৃঙ্খলার ঘটনা ঘটে নাই। এ বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল জানান, চেকপোস্ট বসানো নতুন না। এটা আমাদের রুটিন ওয়ার্ক। আমরা মাঝেমধ্যেই চেকপোস্ট বসিয়ে থাকি। এরমধ্যে কেউ যদি নাশকতা করার পরিকল্পনা করে তাহলেতো তারা পুলিশের তল্লাশিকে ভয় পাবেই।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ