বিদেশে পাচার করে

৩ সন্তানের জননীকে বিক্রির অভিযোগ 

বন্দরে ৩ সন্তানের জননীকে বিদেশেপাচার করে বিক্রির অভিযোগ   বন্দরে উচ্চ বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে ৩ সন্তানের জননী রোকসানা বেগম (৩৮) কে ফুসলিয়ে বিদেশে পাচারের মাধ্যমে দালালদের কাছে বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে মহিলা  আদম পাচারকারি  সেলিনা বেগমের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী স্বামী নিরিহ দিনমজুর সেন্টু মিয়া বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) রাতে প্রতারক মহিলা আদম বেপারী বিরুদ্ধে বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। এর আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর বন্দর থানার ২০নং ওয়ার্ডের মাহামুদনগর এলাকা থেকে বিদেশ পাচারের ঘটনাটি ঘটে। অভিযোগের তথ্য সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ সাম পূর্বে বন্দর থানার ২০নং ওয়ার্ডের মাহামুদনগর জাহাঙ্গীর মিয়ার বাড়ি ভাড়াটিয়া দিনমজুর সেন্টু মিয়ার স্ত্রী রোকসানা বেগমকে উচ্চ বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে নগদ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে সৌদি আরবে পাঠায় একই থানার ২১নং ওয়ার্ডের এমদাদুল মিয়ার স্ত্রী মহিলা আদম বেপারী সেলিনা বেগম। দিনমজুর সেন্টুর স্ত্রী বিদেশ যাওয়ার পর থেকে অদ্যবধী পর্যন্ত তার সাথে কোন যোগাযোগ নেই। এদিকে দিনমজুর সেন্টু মিয়া স্ত্রী রোকসানা বেগমের সাথে যোগাযোগ করতে না পেরে সেন্টু মিয়া মহিলা আদম বেপারী সেলিনা বেগমের বাসা গিয়ে তার স্ত্রী মোবাইল ফোন নাম্বার চায়। ওই সময় প্রতারক মহিলা আদম বেপারী সেন্টুকে ফোন নাম্বার না দিয়ে উল্টা গালাগালি করে। এক পর্যায়ে সেন্টু মিয়া তার স্ত্রীকে দেশ ফিরিয়ে আনার কথা বললে প্রতারক আদম বেপারী দিনমজুর স্বাসী সেন্টু মিয়ার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। এ ঘটনায় সেন্টু মিয়া তার স্ত্রীকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য সকলের কাছ থেকে দারদেনা করে গত ২৯ নভেম্বর বিকেলে প্রতারক মহিলা আদম বেপারী কাছে ১০ হাজার টাকা তুলে দিয়ে। আদম বেপারী টাকা নিয়ে তার স্ত্রীকে দেশে না পাঠিয়ে উল্টা বিভিন্ন লোকজনদেরকে দিয়ে সেন্টুকে নানা ভাবে  হুমকি দামকি অব্যহত রেখেছে। এ অবস্থা থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য সংশ্লিস্ট প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভূক্তভোগী পরিবার।          

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ