হামলার অভিযোগে

মামলাবাদি ও তার মেয়েকে গুম-খুনের হুমকি

হামলার অভিযোগে মামলাবাদি ও তার মেয়েকে গুম-খুনের হুমকি    নিজস্ব প্রতিবেদক, সিদ্ধিরগঞ্জ নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে চাঁদার দাবিতে ব্যবসায়ীর অফিসে হামলা, ভাংচুর ও লুটের ঘটনায় দায়ের করা মামলা তুলে নিতে বাদি ও তার মেয়েকে খুন করে লাশ গুম করে ফেলার হুমকি অভিযোগ পাওয়া গেছে। বার্মাস্ট্যান্ড সফুরা খাতুন উচ্চ বিদ্যালের সামনে সোমবার (১২ ডিসেম্বর) সকালে ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এএসআই কামাল হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরআগে মামলার বাদি গোলাম হোসেন (৪১) ৩ জনের নাম উল্লেখ করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। যাহার নং-৫৬৫। ভুক্তভোগী গোলাম হোসেন জানান,  সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল বাগপাড়া এলাকার ইয়াকুব আলীর বাড়ীর ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী মো. ইকবাল হোসেন (৪৪) ও তার সহযোগী সন্ত্রাসী একই এলাকার ওয়াসিম (৪৫) ও রকি (৩২) সহ আরও অজ্ঞাত ৭/৮ জন পাঁচ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে গত ২৫ নভেম্বর (শুক্রবার) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তার অফিসে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা ওই ব্যবসায়ী ও তার সহ কর্মচারী কাউসারের শরীরে চাপাতি ও চাকু দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে ও সিসি ক্যামেরা ভাঙচুর করে। এ সময় ক্যাশে থাকা নগদ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা গোলাম হোসেনের গাড়ীতে আগুন দিবে বলে  হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে চিকিৎসা শেষে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন যার নং-৩৯৪/২২। এরপর থেকেই সন্ত্রাসীরা মামলা তুলে নিতে তাকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। তাদের এ অব্যাহত হুমকির মূখে আতংকে দিনাতিপাত করছেন তিনি । সোমবার সকালে তাকে অভিযুক্তরা বার্মাস্ট্যান্ড সফুরা খাতুন উচ্চ বিদ্যালের সামনে পথরোধ করে মামলা তুলে নিতে বলে। তিনি মামলা প্রত্যাহার করবেন না বললে তাকে ও তার মেয়েকে খুন করে  লাশ গুম করে ফেলার হুমকি দেয় এবং এ এলাকায় কিভাবে ব্যবসা করবে তা দেখে নিবে বলে হুমকি দেয়। ঘটনাস্থলে যাওয়া সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এএসআই কামাল এ বিষয়ে জানান, থানায় দায়ের করা জিডির সূত্রধরে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ