ঢাকাবুধবার , ১৪ ডিসেম্বর ২০২২
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

পাগলায় শ্রমিক লীগ নেতা নজরুলের তান্ডব

আবু বকর সিদ্দিক
ডিসেম্বর ১৪, ২০২২ ৪:৪৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 ফতুল্লার পাগলায় শ্রমিক লীগ নেতা নজরুলের তান্ডব  ফতুল্লার পাগলায় বসার টুল চেয়ে না পেয়ে ওয়ালটনের শোরুমে ডুকে প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মকর্তা ও এক কর্মচারীকে বেদড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে ফতুল্লা থানার  শ্রমিক লীগের সাধারন সম্পাদক নজরুল।ঘটনাটি সাতদিন পর শোরুমে ডুকে  মারধর করার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল বুধবার। মারধরের ভিডিও টি সামাজিল যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর স্থানীয় মহলে ব্যাপক ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে একই সাথে অভিযুক্ত শ্রমিক লীগ নেতা নজরুল কে গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছে স্থানীয় সকল শ্রেনীর পেশাজীবি মহল।জানা যায়,বৃহস্পতিবার দুপুর তিনটার দিকে ফতুল্লা থানার পাগলা বাজারস্থ কাজী প্লাজার নীচ তলায় অবস্থিত ওয়ালটনের শো-রুম “ইউসা ইলেকট্রনিক ” নামক দোকান থেকে টুল চেয়ে পাঠায় অভিযুক্ত শ্রমিক লীগ নেতা নজরুল। দোকানে থাকা কর্মচারী আমজাদ টুল চাইতে আসা লোকটিকে চিনতে না পেরে টুল দেওয়া থেকে বিরত থাকে। এতে নজরুল ক্ষিপ্ত হয়ে দোকানের ভিতর প্রবেশ করে আমজাদ কে মারধর করে।এ সময় মাসুদ নামক শো রুমের এক কর্মকতা এগিয়ে এলে তাকেও লাথি ঘুষি মারে এমনকি চেয়ার দিয়ে ও আঘাত করে। এতে করে মাসুদের মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়।পরে তাকে স্থানীয় ব্যবাায়ীরা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।আহত মাসুদ মুঠোফোনে জানায়, ৯ ডিসেম্বর দুপুর তাদের দোকানে একটি টুল চেয়ে পাঠিয়েছিলো নজরুল। অপর কর্মচারী চিনতে না পারায় টুল দেয়নি। এতে করে নজরুল দোকানে প্রবেশ করে আমজাদ নামক এক কর্মচারী কে মারতে থাকে। এতে  সে এগিয়ে এসে বাধা দিতে চাইলে তাকে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। তার মাথায় বারোটি সেলাই লেগেছে সে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি আরো বলেন অপর শ্রমিক লীগ নেতা আবুল হোসেন বিষয়টি মিমাংসা করে দেওয়ার কথা বলায় সে এখন পর্যন্ত আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করেন নি। কিন্ত ঘটনার সাতদিন পেরিয়ে গেলেও মারধর করার কোন সুরাহা করেনি আবুল হোসেন। তাই সুস্থ হয়ে তিনি আইন সাহায্য চাইবেন বলে জানান।এ বিষয়ে অভিযুক্ত শ্রমিক লীগ নেতা নজরুল মুঠোফোনে মারধরে বিষয়টি অস্বীকার করে  জানায়, দোকানের কর্মচারী বেয়াদবি করেছিলো। ফলে তিনি উত্তেজিত হয়েছিলেন। মারধের কোন ঘটনা ঘটেনি।শুধুমাত্র ধাক্কাধাক্কি হয়েছিলো সেদিন। ভিডিও ফুটেজের কথা বললে তিনি বলেন অফিসে এসে সরাসরি কথা বলেন। ফোনে এ সব বিষয়ে কথা বলা যায়না বা ঠিকওনা বলে লাইন কেটে দেন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।