ফতুল্লায় ধলেশ্বরী নদীতে ডাকাত-পুলিশ বন্দুক যুদ্ধ , দেশীয় অস্ত্রসহ ৮ ডাকাত গ্রেপ্তার

সদর উপজেলার ফতুল্লায় ধলেশ্বরী  নদীতে একটি ট্রলারে ডাকাতিকালে নৌ ফাড়ি পুলিশ বাধা দিলে ডাকাত দলের সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। এ সময় পুলিশ আত্মরক্ষার্তে পাণ্টা গুলি ছুড়ে ছুড়ে। এ পর্যায়ে ডাকাতরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে পুলিশ ডাকাত দলের ৮ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে। এসময় তাদের কাছ থেকে রামদা, শাবল, কাটারসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারসহ ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ট্রলারটি জব্দ কওে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানা এলাকার কাশেম খানের ছেলে ময়না খান (৩০), একই জেলার কামারগাঁও গ্রামের  মোজ্জামেল হকের ছেলে মো. বাবুল হক (৫৫), মাদারীপুর জেলার শিবচর এলাকার শাহ জাহানের ছেলে মো. আরাফাত হাওলাদার (৩০), ফরিদপুর জেলার সদরপুর এলাকার সুমন বেপারীর ছেলে মো. হারুন বেপারী (৫৫), একই জেলার মৃত তানিজ বেপারীর ছেলে হৃদয় খান (২১), ঢাকা জেলার দোহার এলাকার রাসেল বেপারীর ছেলে শাহ আলম (৫০), ফরিদপুর জেলার মদুকালী এলাকার মৃত আব্বাস শেখের ছেলে মো. শাহ জাহান (৫২), মাদারীপুর জেলাট শিবচর এলাকার জুয়েল হাওলাদারের ছেলে মো. সোজাত হাওলাদার (৪০)। এ সময় বক্তাবলী নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই হাবিবুর রহমান ও কনস্টেবল আনোয়ার সুলতান আহত হয়। শনিবার (৭ জানুয়ারি)  মধ্যরাতে ফতুল্লার বক্তাবলী ফেরী ঘাটের  উত্তর পার্শ্বে কনকর্ড তেল পাম্পের পূর্ব পাড় এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে বক্তাবলীর নৌ-পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ নান্নু মিয়া এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করলে পুলিশও তিন রাউন্ড গুলি ছুড়ে। এক পর্যায়ে ডাকাতরা  মুক্তারপুরের দিকে পালিয়ে যাওয়ার চেস্টা করলে পুলিশ ওই আট ডাকাতকে দেশীয় অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করলেও ৪/৫ জন ডাকাত নদীতে লাফিয়ে পড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ