ওসমান পরিবারের হয়ে কাজ করে ঃ রফিউর রাব্বি

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহবায়ক ও ত্বকীর পিতা রফিউর রাব্বি বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য, দেশটিকে সকল মানুষের দেশ বানানোর জন্য। কিন্তু অর্ধশতাব্দীতে আমাদের কোন সরকারই চায়নি দেশটাকে জনগণের হোক। তারা নিজেদের ক্ষমতা ধরে রাখার প্রয়োজনে দুর্বৃত্ত, গডফাদার আর মাফিয়াদের হাতে দেশের মালিকানা তুলে দিয়েছে। রাষ্ট্রে এই দুর্বৃত্তশক্তি আজ সর্বশক্তিমান। জোর করে ক্ষমতা ধরে রাখতে সরকার বিচার ব্যবস্থা, নির্বাচনী ব্যবস্থা, সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করেছে। জনগণের মৌলিক অধিকারের সকল প্রতিষ্ঠানকে প্রশ্নবিদ্ধ করে প্রতিনিয়ত সংবিধানকে রঙ্ঘন করে চলেছে। দশ বছর হতে চলল অথচ ত্বকী হত্যার তৈরী করে রাখা অভিযোগপত্রটি পর্যন্ত আদালতে পেশ করেনি। এইটি বিচারহীনতার নজিরই নায় সরকারের দেউলিয়াপনার উদাহরণ। সরকার নিজের ব্যার্থতা রাষ্ট্রের কাঁধে চাপিয়ে রাষ্ট্রকেই আজকে প্রশ্নের মুখোমুখী দাঁড় করিয়ে দেউলিয়া করে দিতে চাচ্ছে। যে ওসমান পরিবার ত্বকী হত্যা সহ বহু অপকর্মের জন্মদাতা- সরকার বিভিন্ন সময তাদের পুরস্কৃত করেছে। সংসদে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী ত্বকীর ঘাতকদের পাশে থাকার ঘোষণার মধ্যদিয়ে তিনি পবিত্র সংসদকে কলুষিত করেছেন। তিনি সাগর-রুনী, তনু সহ নারায়ণগঞ্জের সকল হত্যার বিচার দাবি করেন।রোববার (৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নগরীরর আলী আহম্মদ চুনকা পাঠাগার মিলনায়তনের সামনে মেধাবী ছাত্র ত্বকী হত্যার ১১৮ মাস উপলক্ষে আয়োজিত আলোক প্রজ্জ্বলন কর্মসূচীতে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।তিনি বলেন, পাঁচ বছর আগে শহরে হকার অপসারণকে কেন্দ্র করে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে শামীম ওসমান বাহিনীর স্বসস্ত্র হামলার চিত্র আমরা দেখেছি। বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে অস্ত্রসহ সে ছবি ছাপা হওয়ায় সারা দেশের মানুষ দেখেছে। অথচ সে মামলা থেকে দুদিন আগে সকল অস্ত্রধারীদের খালাস দিয়ে পুলিশ অভিযোগপত্র দিয়েছে। নারায়ণগঞ্জে পুলিশ জনগণের নয় ওসমান পরিবারের হয়ে কাজ করে। প্রকাশ্যে অস্ত্র সহ হামলা করলেও পুলিশ তা দেখে নাই। জবানবন্দি দেয়া ত্বকীর ঘাতকরা প্রকাশ্যে ঘুড়ে বেড়ালেও পুলিশ তা দেখে না। অস্ত্রবাজ অপরাধীদের নিয়ে এখানে পুলিশ কমিউনিটি পুলিশ তৈরী করে।সংগঠনটির সভাপতি ভবানী শংকর রায়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শাহীন মাহমুদের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের সদস্যসচিব হালিম আজাদ, সাবেক প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও খবরের পাতার সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান মাসুম, জেলা নাগরিক কমিটির সভাপতি এবি সিদ্দিক, গণসংহতি আন্দোলনের জেলা সমন্বয়ক তরিকুল সুজনসহ প্রমুখ।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ