ঢাকাশুক্রবার , ২৪ মে ২০২৪
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রুপগঞ্জে ডন সেলিমের বাড়ীতে দফায় দফায় হামলা

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ স্টাফ
মে ২৪, ২০২৪ ১০:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ক্যাসিনো কান্ডে আলোচিত সেলিম প্রধান ওরফে ডন সেলিমের বাড়ীতে ক্ষমতাশীন দলের সন্ত্রাসীরা দফায় দফায় হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রুপগঞ্জের গোলাকান্দাইল সাওঘাট এলাকায় সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত মোটর সাইকেল যোগে অর্ধশত সন্ত্রাসীরা দফায় দফায় এই হামলা চালায়। সেলিম প্রধান ও তার স্ত্রী রাশিয়ান নাগরিক আনা প্রধান শুক্রবার গণমাধ্যমের কাছে অভিযোগ করেন, এসময় সন্ত্রাসীরা গুলি বর্ষন ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটিয়ে পুরো এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে। সরেজমিনে সেলিম প্রধানের বাড়িতে হামলায় ব্যবহৃত লাঠিসোঁটা, ইটপাটকেল, ভাঙা কাচ ও গুলির খোসা পড়ে থাকতে দেখতে পান গণমাধ্যম কর্মীরা। এদিকে শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে প্রথম দফায় হামলার কয়েক ঘন্টা পরই দুপুরে সেলিম প্রধানের মালিকাধীন প্রায় ষোল বিঘা আয়তনের বিশাল কাচা বাজারের আড়তের ব্যবসায়ীরা তার বিরুদ্ধে একটি সংবাদ সম্মেলন করেন। সেখানে আড়তের ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, ঐ আড়তটি ১০বছরের চুক্তিতে ভাড়া দিলেও সেলিম প্রধান সেটি দখল করতে চাইছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, মূলত সদ্য সমাপ্ত রুপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে ক্ষমতাশীন দলের পছন্দের ও জয়ী প্রার্থীর বিরুদ্ধে অপর প্রার্থীকে নিয়ে মাঠে নামার কারণেই এই হামলার মূল কারণ। পাশাপাশি সেলিম প্রধানের মালিকানাধীন বিশাল কাচাবাজারের আড়তের দখল নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই বিরোধ চলছিল। বর্তমানে ঐ আড়তের পরিচালনায় যারা আছেন তারা সবাই ক্ষমতাশীন দলের লোক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দফায় দফায় হামলার সময় তারা বিস্ফোরণের শব্দ পেয়েছেন, তবে গুলি বর্ষন হয়েছে কিনা তারা জানেন না। এদিকে প্রথম দফায় হামলার পর দুপুর ১টার দিকে নিজ বাড়ীতে সংবাদ সম্মেলন করে সেলিম প্রধান দাবী করেন, সকাল ৯ দিকে রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইল এলাকায় তার বাড়ির সিসি টিভি ক্যামেরার সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে একদল মুখোশ পরিহিত লোক দেশি অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। কাচা বাজারের আড়তের বিষয়ে সেলিম প্রধান দাবি করেন, জেলে থাকা অবস্থায় তাঁর এক স্বজনের মাধ্যমে মজিবুর রহমান জাল স্বাক্ষর ব্যবহার তাঁর (সেলিম) মালিকানাধীন ১৬ বিঘা জমি ভাড়া নেন। জেল থেকে বের হওয়ার পর বিষয়টি জানতে পেরে তিনি তাঁর জমি ফেরত চান। চুক্তি অনুযায়ী সাত মাস আগে জমি ফিরে পেতে ভাড়াটেদের তিনি আইনি নোটিশ পাঠান এবং থানায় অভিযোগ করেন।

এদিকে সেলিম প্রধানের সংবাদ সম্মেলনের আগেই দুপুর ১২টায় সংবাদ সম্মেলন করেন ঐ আড়তের ব্যবসায়ীরা। সেখানে ব্যবসায়ীদের পক্ষে আড়তদার মজিবুর রহমান দাবী করেন, ২০১৯ সালে ১০ বছর চুক্তিতে সেলিম প্রধানের মালিকানাধীন ১৬ বিঘা জমি ভাড়া নেন তিনি। পরে রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা পরিষদের সদ্য বিজয়ী চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান এবং রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মীর আবদুল আলীম যৌথভাবে সেখানে বালু ভরাট করে প্রায় সাড়ে ৩০০ দোকানের একটি আড়ত গড়ে তোলেন। তারপর প্রায় তিন বছর তাঁরা সেলিম প্রধানকে মাসিক সাড়ে সাত লাখ টাকা আড়তের ভাড়া দেন। এরই মধ্যে সেলিম প্রধান জেল থেকে মুক্তি পেয়ে তাঁর বাহিনী দিয়ে আড়তটি দখলে নেন। অপরদিকে বিকাল সাড়ে তিনটায় সেলিম প্রধানের বাড়িতে আবারো হামলার খবর পাওয়া যায়। হামলার পর সেলিম প্রধান গণমাধ্যমকে জানান,হাবিবুর রহমান ও মজিবুর রহমানের লোকজন মোটর সাইকেলে করে মহড়া দিয়ে তাঁর বাড়িতে হামলা চালান। আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমি সরকারের সর্বচ্চো মহলের কাছে এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার কামনা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে মজিবুরের করা অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে সেলিম প্রধান, ‘আইনি নোটিশের পর মজিবুরসহ তাঁর অংশীদারদের সঙ্গে আমার দুই দফায় বৈঠক হয়। তখন পারস্পরিক সমঝোতায় আমি আমার আড়ত বুঝে নিই। কোনো হামলার ঘটনা তখন ঘটেনি।’ সেলিম প্রধানের বাড়িতে হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে মজিবুর বলেন, ‘তাঁর বাড়িতে আমাদের কেউ হামলা করেনি। তিনি নিজেই নিজের বাড়ির কাচ ভাঙচুর করে নাটক সাজিয়েছেন।’

এদিকে হামলা ও পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলনের ঘটনায় গোলাকান্দাইল আড়ত এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক চন্দ্র সাহা প্রথম আলোকে বলেন, বাড়িঘরে হামলার খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। যেকোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলায় পুলিশ তৎপর রয়েছে। এ বিষয়ে তিনি অভিযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে গুলি বর্ষনের কোন ঘটনা ঘটেছে বলে তিনি জানেন না বলে দাবী করেছেন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।