হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে বাধা দেয়ায়

ঘুষি মেরে স্বামীর দাঁত ভেঙে দিয়েছেন স্ত্রী!

হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে বাধা দেয়ায় ঘুষি মেরে দাঁত ভেঙে দিয়েছেন স্ত্রী, এমন অভিযোগে ভারতের শিমলায় মামলা দায়ের করেছেন এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় স্ত্রীর উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বামী। খবর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) এ ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) শিমলার থিওগ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

ওই ব্যক্তি পুলিশকে জানান, তার স্ত্রী মোবাইলে আসক্ত। ক্রমাগত হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট করতে থাকেন। বৃহস্পতিবার স্ত্রী যখন হোয়াটসঅ্যাপে মগ্ন ছিলেন, তখন তিনি বাধা দিতে যান। এতেই স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয় এবং ঘুষি মেরে তার দাঁত ভেঙে দেন। এছাড়াও অভিযোগ করেন, স্বামীকে লাঠি দিয়েও মারধর করেছে ওই স্ত্রী। এতে হাসপাতালে নিতে হয় ওই ব্যক্তিকে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সোজা থানায় হাজির হন তিনি, অভিযোগ দায়ের করেন স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা নথিভুক্ত করে থিয়োগ থানার পুলিশ। শিমলার পুলিশ সুপার মণিকা জানান, স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। কেন ওই মহিলা এমন কাজ করলেন তা খতিয়ে দেখা হবে। মহিলাকে খুব শীঘ্রই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। অভিযোগকারী স্বামীকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ