অসহায় বৃদ্ধার পাশে লিপি ওসমান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফতুল্লা

ময়লা ফেলতে গিয়ে কোমর ভেংগে যায় ৬৫ বছর বয়সী নারীর। ডাক্তার বলছে, চিকিৎসা করাতে ব্যর্থ হলে পংগু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অথচ, চিকিৎসা করার সামর্থ্য নেই। প্রচন্ড ব্যথায় কাতরাচ্ছিলো আর চিরতরে পংগু হওয়ার অপেক্ষায় ছিলো এই নারী।কয়েক দিন পূর্বেও নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা ফাতেমা বেগমের জীবনের অপ্রিয় বাস্তবতা ছিল এটি।

এ খবর পৌঁছে যায় নারায়ণগঞ্জ মানবতার মা উপাধি পাওয়া নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা সংস্থা চেয়ারম্যান লিপি ওসমানের কাছে। সমাজ কর্মী পাঠিয়ে শহরের প্রাইম ক্লিনিকে ভর্তি করান এই অসহায় বৃদ্ধাকে। ডাক্তার জানান, ফাতেমা কোমড় এ বল বসাতে হবে যা ব্যয় বহুল। এরপর লিপি ওসমান চিকিৎসা ব্যবস্থা করে চিরতরে পংগু হতে যাওয়া ফাতেমার পাশে দাঁড়ালেন তিনি। হাসিমুখে ফাতেমা ফিরেছেন বাসায়।

নারায়ণগঞ্জ প্রাইম ক্লিনিক এর ম্যানেজার নূর মোহাম্মদ জানান, লিপি ওসমান শুনেছি বহু মানুষের পাশে দাঁড়ান। ফাতেমার পাশে দাঁড়ালেন তিনি। লিপি ওসমানের একটি মানবিক কাজের সাক্ষী হয়ে থাকলাম, আল্লাহ তাঁর ভালো করুন। সামাজিক সংগঠন মানবিক নারায়ণগঞ্জ এর নির্বাহী পরিচালক রোমান চৌধুরী সুমন জানান, ফাতেমাকে বাসা থেকে আনার মানুষটিও ছিল না।

লিপি ওসমান কাশীপুর এলাকার সমাজ কর্মী তালহার মাধ্যমে লোক সংগ্রহ করে ফাতেমাকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন। পরে তার চিকিৎসা ব্যয়ভার বহন করেন।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা সংস্থা চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি জানান, মাত্র কয়েকটি টাকার জন্য একটি মানুষ চিরতরে পঙ্গু হয়ে যাবে? যা করেছি আল্লাহকে রাজী খুশি করতে করেছি। আল্লাহ মুরুব্বিকে সুস্থ রাখুন।

আরোও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ