ভাড়াটিয়া এনে দল ভারীর চেষ্টা চলছে

নগর প্রতিবেদক:

ভাড়াটিয়া লোকজন এনে দল ভারী করার চেষ্টা চলছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন। সোমবার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে নগরীর ২ নম্বর রেলগেইট এলাকায় দলীয় কার্যালয়ে আওয়ামী লীগ নেতা কাজী আব্দুল করিম ও পুলক কান্তি ঘোষাল (বাচ্চু) স্মরণে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
কান্না জড়িত কন্ঠে আনোয়ার হোসেন বলেন,

‘আন্দোলন সংগ্রামের সব সময় পেতাম আব্দুর করিম ও তার সহযোদ্ধা আমার বাল্যবন্ধু পুলক কান্তি ঘোষালকে। তাদের গভীরভাবে শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি। কিছু কিছু মানুষ অন্তরে থাকে, তারা না থাকলে অন্তরে আঘাত লাগে। বার্ধক্যজনিত কারণে বিছানায় থাকলেও আওয়ামী লীগের যেকোনো অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার চেষ্টা করতেন। বয়স হলেও বাসা থেকে রিকশাযোগে পার্টি অফিসে এসে বসে থাকতেন। রাজনীতি নিয়ে আমাকে অনেক সহযোগিতা ও সাহস যোগান দিতেন বাচ্চু ঘোষাল।

ওনারা আমার ও আমার পরিবারের খোঁজ খবর নিতেন।’ আক্ষেপ প্রকাশ করে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বলেন, ‘দল আজ মানুষ ও নেতা-কর্মীদের কাছ থেকে অন্যস্থানে চলে যাচ্ছে। আজকে দুই জনকে হারিয়ে আমরা শোকাহত। আসলে কেন যেন দলের সুসময় ত্যাগী নেতা-কর্মীরা চলে যাচ্ছে। আর দলে ভিড় করছে হাইব্রিড কাউয়া, ব্যাঙেরা। আমরা আজকে পারতাম, সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে আব্দুল করিম, রোকন উদ্দিন, গোপীনাথ দাস ও পুলক ঘোষালের স্মরণ সভা করতে।

বার বার চেষ্টা করে কেন যেন দলকে ঐক্যবদ্ধ করে সকলের স্মরণ সভা করতে পারছি না। দলকে বিভ্রান্ত করে দলের নেতাদের পরিহার করে ভাড়াটিয়া লোকজন এনে দলকে ভারী করার চেষ্টা চলছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চাই। যে রাজনীতি মানুষকে মঙ্গল করে সে রাজনীতি করতে চাই। আসুন আব্দুল করিম ও পুলক ঘোষালের মত তাকিয়ে মানুষের পাশে দাড়ায়। তাদের কাছে মানুষের জন্য সহযোগিতা পেতাম ও নিতাম। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া আব্দুল করিম ও পুলক ঘোষালের মতো নেতাদের হারালাম।

আগামীতে মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে যারা মৃত্যুবরণ করেছে তাদের স্মরণ সভা করবো।’ নারায়ণগঞ্জ মহনগরের ১৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহসভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শেখ হায়দার আলী পুতুল, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আদিনাথ বসু, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম আহসান হাবিব, জি এম আরমান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম,

মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রশিদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক, বন ও পরিবেশ সম্পাদক আকতারুজ্জামান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা জালাল উদ্দিন জালু, মুক্তিযোদ্ধা আইয়ূব আলী, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শামীম খাঁ, সানোয়ার তালুকদার, মোহাম্মদ শামসুজ্জামান, উত্তম কুমার সাহা, বিমল দত্ত, ১৫নং ওয়ার্ড প্রচার সম্পাদক আমজাদ হোসেন ও শাহাবুদ্দিন মাষ্টার প্রমুখ।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ