লোকদেখানো জনসেবায় ভোগান্তিতে পরীক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিদ্ধিরগঞ্জ:

দরজায় কড়া নাড়ছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কাউন্সিলর প্রার্থীরা নানানভাবে প্রচারণা চালাচ্ছেন। প্রচারণার অংশ হিসেবে চলমান এসএসসি পরীক্ষাকে তারা বেছে নিয়েছেন! এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগে নাসিকের ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ওমর ফারুক এবং ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মাহমুদুর রহমান ২০-২৫ জন লোক নিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ পুল এলাকায় যানজট নিরসনের কাজ করেন।

তাদের এই লোক দেখানো জনসেবার কারণে স্বয়ং মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থীরাই ভোগান্তিতে পড়ছেন এমন অভিযোগ মিলেছে। জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোড থেকে আদমজীগামী পরীক্ষার্থীদের রাস্তা দীর্ঘ সময় আটকে রেখে তালতলা ক্লাব (টিসি) রোডের এলাকার পরীক্ষার্থীদের দ্রুত যেতে দেয়া হয়। ওই সময়ে কাউন্সিলর ফারুক ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মাহমুদুল এর অনুসারীরা সড়ক দখলে নিয়ে ফটোশেসন করে।

এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীরা। যার কারণে পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকবৃন্দরাও জনপ্রতিনিধিদের উপর ক্ষুদ্ধ। সরেজমিনে ঘুরেও দেখা গেছে, তারা তাদের অনুসারীদের নিয়ে জনসেবার নামে ভোগান্তির সৃষ্টি করছেন। জানা গেছে, যাদেরকে নিয়ে তারা যানজট নিরসনের কাজ করেন তাদের অধিকাংশই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবী। চাকুরীজীবী ইউনুসের মেয়ে রোকসানা এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থী। তার পরীক্ষার কেন্দ্র পড়েছে আদমজী নগর এম.ডব্লিউ. উচ্চ বিদ্যালয়ে।

ইউনুস বলেন, তাদের বাড়ি সিদ্ধিরগঞ্জের নয়া আটি হওয়ায় তাকে সিদ্ধিরগঞ্জ পুল পাড় হয়ে যেতে হয়। ভোগান্তিটা সিদ্ধিরগঞ্জ পুলেই। এখানে আসন্ন সিটি নির্বাচনের সম্ভাব্য কাউন্সিলর পদপ্রার্থীরা তাদের ওয়ার্ডের (মিজমিজি এলাকা) শিক্ষার্থীদের রাস্তা ক্লিয়ার করে দেন। আর আমাদের রাস্তা অনেকক্ষণ আটকে রাখেন। এতে করে আমাদের ব্যবহার করা সড়কের অংশে জটলা হয় প্রচুর। সাকিব নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী বলেন, আমরা সাধারণ শিক্ষার্থী তারা (সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী) কেনো আমাদেরকে নিয়ে টানাটানি করছেন?

সড়কে তাদের দলবলের জন্য আমরা পরীক্ষার্থীরা কোন সেবাতো পাচ্ছিই না উল্টো হয়রানি হচ্ছি। মজিবুর রহমান নামে এক অভিভাবক বলেন, তারা এতদিন কোথায় ছিলেন? শুধু সিদ্ধিরগঞ্জ পুলের অংশটুকুই না পুরো সিদ্ধিরগঞ্জেই যানজট আর অটো রিক্সার ঝামেলা। আমাদের কাউন্সিলর ফারুক সাহেব যেই পুলে দাঁড়িয়ে লোক দেখানো যানজট নিরসন করছেন। সেই সিদ্ধিরগঞ্জ পুল দখল করে অবৈধ দোকানপাট বসিয়ে যে প্রভাবশালীরা চাঁদা তুলছেন সেটা কি তিনি দেখেন না। তিনি তো এখনও আমাদের কাউন্সিলর।

এদিকে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে নাসিক ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ওমর ফারুক বলেন, প্রচারণার উদ্দেশ্যে নয়, ছাত্র-ছাত্রীরা যেনো কোনো ভোগান্তিতে না পড়ে সেজন্য তারা স্বেচ্ছায় এ কাজ করছেন। শুধু এবছরই না প্রতিবছরই এসএসসি পরীক্ষার সময় স্বেচ্ছায় যানজট নিরসনের কাজ করে থাকেন। তাদের যানজট নিরসনের কর্মীদের মধ্যে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে এড়িয়ে যান কাউন্সিলর ওমর ফারুক।

এ বিষয়ে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মাহমুদুর রহমান বলেন, লোক দেখানোর জন্য নয় ছাত্র-ছাত্রীরা পরীক্ষা দিতে গিয়ে যেনো কোনো দুর্ভোগের শিকার না হয় সেজন্যই তাদের এ ক্ষুদ্র প্রয়াস। এ বিষয়ে কথা হয় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শওকত জামিলের সাথে। তিনি জানান, যদি ভোগান্তির সৃষ্টি হয়ে থাকে, তাহলে আমি বলবো জনপ্রতিনিধিদের থেকে এটা কাম্য নয়। বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছি।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ