বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দেওভোগে একই পরিবারের ৩ গৃহবধূর মৃত্যু

এক শোক যেন সইবার নয়। একই পরিবারের ৩গৃহবধুর একই সাথে মর্মান্তিক মৃত্যূ মেনে নেয়ার মত নয় বৈকি। নগরীর দেওভোগে আখড়া এলাকায় বৃহস্পতিবার দুপুরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে একই বাড়ির ঐ তিন গৃহবধূর মৃত্যু হয়। পরিবারের দাবি বৃষ্টির মধ্যেই বৈদ্যুতিক তারের লিকেজ থেকে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। পরে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ডিপিডিসি) লোকজন এসে ওই বাড়ির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে।

নিহতরা হলেন, নিখিল ঘোষের স্ত্রী বাসন্তী রাণী ঘোষ (৪২) , দীপক ঘোষের স্ত্রী মনি রাণী ঘোষ (৩৮) এবং রঞ্জিত ঘোষের স্ত্রী বিমলা রাণী ঘোষ (৫৩)। তারা সকলেই সম্পর্কে জাঁ হন। নিহতদের মরদেহ ওই এলাকার লক্ষী নারায়ণ মন্দিরে রাখা হলে স্বজনদেও আহাজারিতে পুরো এলাকায় শোক নেমে আসে।

নিহতদের স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছিল। এসময় ঘরের মেঝে পরিষ্কার করছিলেন বিমলা রানী। তিনি এক পর্যায়ে ঘরের গেইট স্পর্শ করলে তিনি বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হন । কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই বাকি দুই জাঁ তাকে অসুস্থ মনে করে ধরতে গেলে তারাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এতে ঘটনাস্থলেই ৩জন নিহত হন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনির হোসেন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর (ওয়ার্ড ১৩,১৪,১৫) শারিমন হাবিব বিন্নি। এসময় নিহতদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন। নিহতদের মরদেহ ওই এলাকার লক্ষী নারায়ণ মন্দিরে রাখা হলে এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। পরে শোক সন্তপ্ত পরিবারকে শান্ত্বনা দিতে আসেন সিটি মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী। সন্ধ্যার পর ৩নিহত গৃহবধুর অন্তিম সংস্কার(দাহ) করা হয়।

এসময়ও উপস্থিত ছিলেন ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনির হোসেন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর (ওয়ার্ড ১৩,১৪,১৫) শারিমন হাবিব বিন্নি।নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) মো. সাইদউজ্জামান জনান, নিহতরা সকলেই একই বাড়ির বাসিন্দা। তারা বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারা গেছেন বলে পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন। পরিবারের দাবির প্রেক্ষিতে মরদেহ ময়নাতদন্ত না করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ