১২ ডিসেম্বর নাসিকে প্যানেল মেয়র নির্বাচন, ৩ পদে প্রার্থী ৯

১২ ডিসেম্বর নাসিকে প্যানেল মেয়র নির্বাচন, ৩ পদে প্রার্থী ৯দীর্ঘ ৯মাসের মাথায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র নির্বাচন। নাসিকের একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তারা জানিয়েছেন, ১২ডিসেম্বর মাসিক সভায় এই নির্বাচন হতে পারে।ইতোমধ্যেই প্যানেল মেয়র নির্বাচনের জন্য মাঠে নেমে পরেছেন সম্ভাব্য প্রার্থী তথা কাউন্সিলররা। কেউ স্বশরীরে যাচ্ছেন সহকর্মী কাউন্সিলরদের দ্বারে দ্বারে আবার কেউ ছক আকঁছেন নীরবে। শেষ পর্যন্ত কে কে প্রার্থী হিসেবে ঐ দিন থাকবেন বা থাকছেন সেটি নিয়েও তৈরী হয়েছে ধোঁয়াশা।জানা গেছে, প্যানেল মেয়র ১ পদে এবার মেয়র আইভীর ঘনিষ্ঠ সাবেক প্যানেল মেয়র আফরোজা হাসান বিভা, কাউন্সিলর রুহুল আমিন এবং শামীম ওসমানপন্থী হিসেবে কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু মাঠে রয়েছেন। সূত্র বলছে, বিভা ও রুহুল আমিন শেষ পর্যন্ত প্রার্থী থাকলে সেটি সাপেবর হয়ে যেতে পারে আব্দুল করিম বাবুর ক্ষেত্রে। তবে আব্দুল করিম বাবুর সমর্থনে থাকা কাউন্সিলরদের কেউ যদি বিপক্ষ প্রার্থীকে ভোট দেন তবে রুহুল বা বিভার ললাটে জয় তিলক লাগতে পারে এমন সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না সূত্র গুলো।অপরদিকে প্যানেল মেয়র-২ পদে প্রথম দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলের শোনা গেলেও এই পদে উঠে এসেছে আরো ৩প্রার্থীর নাম। তার মধ্যে সাবেক প্যানেল মেয়র (২) কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান, করোনা হিরো খ্যাত কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খোরশেদ ও অপর করোনা হিরো শওকত হাশেম শকুর নামও শোনা যাচ্ছে।এর মধ্যে মনিরুজ্জামান মনির প্রথম দিকে প্যানেল ১ এর প্রার্থী হবেন এমনটা শোনা গেলেও আসন্ন নির্বাচনে তিনি পুনরায় প্যানেল ২ পদে লড়তে পারেন। কাউন্সিলর খোরশেদ ও শওকত হাশেমও বেশ শক্ত প্রার্থী বলে মনে করছেন একাধিক সূত্র। সেক্ষেত্রে শাহজালাল বাদল প্রার্থী হিসেবে পিছিয়ে আছেন বলে মন্তব্য করছেন বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর।অপরদিকে প্যানেল মেয়র-৩ পদে আবারো অতীতের পুনরাবৃত্তি হতে চলেছে বলে জানা গেছে। গত নির্বাচনে নারী কাউন্সিলর মিনোয়ারা বেগম মিনুর সাথে নারী কাউন্সিলর শারমিন হাবিব বিন্নীর ড্র হলে সরাসরি মেয়র আইভীর ভোটে জয়ী হয়েছিলেন মিনোয়ারা মিনু। এবার এই পদে প্রথম দিকে বন্দরের নারী কাউন্সিলর শাওন অঙ্কনের নাম শোনা গেলেও শেষ অবধি শোনা যাচ্ছে মিনোয়ার নামই। অপরদিকে নারী কাউন্সিলর শারমিন হাবিব বিন্নীর ক্ষেত্রে গতবারের ফলাফল মাথায় রেখেই কাউন্সিলররা ভোট দিবেন বলে জানা গেছে।কয়েকজন কাউন্সিলর নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, গতবার ভোটে ড্র করার পর আমরা কয়েকজন লটারীর কথা বলেছিলাম, এদেও মধ্যে কেউ বিন্নীকে ভোট দিয়েছি কেউ মিনোয়ারাকে দিয়েছি। কিন্তু মেয়র মহোদয় সরাসরি লটারির পক্ষে না গিয়ে তার ভোট মিনোয়ারাকে দেন। এতে করে তার ব্যক্তিগত পছন্দ অপছন্দের বিষয়টি প্রকাশ পেয়েছিল। যদিও সাবেক পৌরসভা আমলের শেষ নির্বাচনে আজাহার হোসেন ও জমসের আলী ঝন্টুর মধ্যে ড্র হওয়ার পর লটারি হয়েছিল। এই বিষয়টি মাথায় রেখেই আমরা ভোট দিবো এবার।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ