ঐতিহ্যবাহি ব্যাপ্টিস্ট চার্চে নতুন ভবন নির্মাণ হবে – লিপি ওসমান

জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সহ ধর্মিনী লিপি ওসমান বলেছেন,১৭৬ বছরের ঐতিহ্যবাহী এই চার্চে নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে।যতদিন নতুন ভবন নির্মাণ না হবে আপনাদের চার্চের জন্য সাংসদ ও উপজেলার মাধ্যমে সংস্কারের জন্য টিন বরাদ্ব দেয়া হবে।

শনিবার (২৫ ডিসেম্বর)সকালে শহরের নবাব সিরাজদ্দৌলা সড়কে ব্যাপ্টিস্ট চার্চে আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

সাংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের সহধর্মিণী সালমা ওসমান লিপি ফিতা কেটে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন।

এ সময় বড়দিনের আলোচনায় বক্তব্য রাখেন সালমা ওসমান লিপি,নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান এড.আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস,সচিব ফ্রান্সিলিয়া গোমেজ,চার্চের উপদেষ্টা রিচার্ড সৌরভ দেউড়ী,তনয় দেউড়ী।

এ সময় ছিলেন চার্চের যাজক জোশেফ,সংগঠক চার্লস সৌমেত্র দেউড়ী,বিনয় দেউড়ী,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(ক সার্কেল)নাজমুল হাসান,নারায়ণগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃশাহ জামান,নাসিক ১৩,১৪ ও ১৫ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত কাউন্সিলর শারমিন হাবিব বিন্নি প্রমূখ।

চার্চের উপদেষ্টা রিচার্ড সৌরভ দেউড়ী ১৭৬ বছরের এই ব্যাপিস্ট চার্জকে অবহেলা এবং বিভিন্ন সুযোগ থেকে বঞ্চিত হওয়া সহ বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন এবং সাংসদ শামীম ওসমান,সালমা ওসমান লিপি,উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড.আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাসের সহযোগিতা চান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সালমা ওসমান লিপি আরো  বলেন,আজকে আপনাদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব।আপনাদের সাথে আমিও সামিল হয়েছি আপনাদের উৎসবে।আর এটা আমার জন্য একটা বড় আনন্দের ব্যাপার।আমাদের সকল ধর্মকেই শ্রদ্ধা করা উচিত।যদি আমরা সকল ধর্মকে শ্রদ্ধা না করি তাহলে মনে আমাদের শান্তি আসবে না এবং আমি এটা বিশ্বাস করি সকল ধর্মই বলে শান্তির কথা।কোন ধর্মই সহিংসতা,মারামারি,খুন খারাপির কথা বলে না।আমাদের সবচেয়ে বড় পরিচয় আমরা মানুষ।তারপর আমরা যে যার ধর্ম মনে লালন করবো।এই ধর্মকে লালন করতে হলে আমাদের মনুষ্যত্ব প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।সুতরাং আমরা আমাদের ধর্মকে শ্রদ্ধা ও সম্মান করতে পারলেই আমরাই শান্তিতে থাকবো।

ছোটবেলার স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন,ছোটকাল থেকেই আমি আপনাদের এই খ্রিষ্টান ধর্মের সাথে সম্পৃক্ত।আমি ছোটকালে যখন নারায়ণগঞ্জ প্রিপারেটরী স্কুলে পড়তাম।তখন আমার তিনজন ফ্রেন্ড ছিলো।একজন ছিলো রুবি গোমেজ,আরেকজন সুবিতা দেগোস্টা ও রোজ মেরি। রোজ মেরি ও রুবিও আমেরিকা আছে। বড়দিন সম্পর্কে অনেক আগ্রহ ছিলো তাই ওদের সাথে মিশতাম। কিভাবে পালন করে দেখতে যেতাম।সুতরাং এই ধর্মের সাথেই আমার ছোটবেলা থেকেই পরিচয়।

দাবী ধাওয়া প্রসঙ্গে  সালমা ওসমান লিপি বলেন,এখানে নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে।এ বিষয়ে আমি আপনাদের এই এলাকার সাংসদ শামীম ওসমানের সাথে কথা বলবো।যতদিন নতুন ভবন নির্মাণ না হবে ভবন সংস্কার করার জন্য টিন বরাদ্ব দেয়া হবে।

তবে আমি এইখানের জায়গার সমস্যার বিষয়টায় কথা দিতে পারলাম না।কারন ধর্মীয় কোন প্রতিষ্ঠানের জায়গা যদি নেওয়া হয় তাহলে সেটা পাপ হয়।তাই আপনেরা আদালতের শরণাপন্ন হোন আমার বিশ্বাস আপনাদের ঈশ্বর আপনাদের প্রার্থনা কবুল করবে।আর যেটা নিয়ে আমি আবুল কালাম ভাইয়ের সাথে কথা বলেছি।এটার ১৭৬ বছর হয়ে গেছে।আর এটা তো নষ্ট করতে দেওয়া হবে না।এটার সংস্কার করতে হলেও আপনাদের জেলা প্রশাসকের অনুমতি লাগবে।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশ্বের শানিমশ কামনায় বিশেষ প্রার্থনা সভা, ধর্মীয় সংগীতানুষ্ঠান, শিশুদের বিভিন্ন উপহার,প্রধান অতিথির পক্ষ থেকে খ্রিস্টান ধর্মালম্বীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ,কেক কাটা সহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ