সাধ্যের মধ্যে সেরা খুঁজতে নগরীর ফুটপাত জমে উঠেছে

মুসলিম ধর্মাবলম্বিদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র মাহে রমজানের সবে মাত্র শুরু, তবে এরি ইতোমধ্যে জমে উঠেছে নগরীর ফুটপাতের বাজার। সোমবার (১১ এপ্রিল) সারেজমিনে নগরীর বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেলো এমন চিত্র।নিম্ন ও স্বল্প আয়ের মানুষ ঈদ কেনাকাটা সারছেন ফুটপাত থেকে। গত দুইবারের চেয়ে এবার কেনাবেচা তুলনামূলক ভালো হবে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। হকারদের হাঁকডাকে প্রতিটি ফুটপাতের দোকানে চলছে ঈদের কেনাবেচা।নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কের ফুটপাতে শার্ট ও প্যান্টের পসরা সাজিয়ে বসেছেন আলমগীর ইসলাম নামে এক ব্যবসায়ী।

তিনি জানান, ‘পুলিশি কড়াকড়ির মধ্য দিয়ে বিক্রি ভালোই হচ্ছে। দুপুর থেকেই ক্রেতা আসতে শুরু করেছেন।’বঙ্গবন্ধু সড়কের দুই পাশে দেখা যায়, মার্কেটের ভেতরের চেয়ে মাঝখানের ফুটপাতগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় বেশি। সড়কের দুপাশের ফুটপাতগুলো এখন গমগম করছে ক্রেতা-বিক্রেতাদের পাদচারণায়। শত শত মানুষ ভিড় করছেন তুলনামূলক কম দামে পণ্য কেনার জন্য। তাই সারাক্ষণই হাঁকডাকে সরগরম প্রতিটি দোকান।তবে ফুটপাতের অনেকেই বলছেন, ‘ভিড় থাকলেও বেচাকেনা তেমন হচ্ছে না।’ফুটপাতের এসব দোকানগুলোতে প্রায় সব কিছুই পাওয়া যায়; তার মধ্যে আছে ছেলেদের পাঞ্জাবি, শার্ট, প্যান্ট, মেয়েদের থ্রি-পিস এবং বিভিন্ন ধরনের কসমেটিকসহ সাধ্যের মধ্যে সব পণ্য।ছোট্ট মেয়ের জন্য ইদের কিনতে এসছেন মো. বিপ্লব।

তিনি বলেন, ‘দুইটা টপস নিয়েছি। ২০০ টাকা করে চার শত টাকা নিয়েছে। যদি ব্র্যান্ডের থেকে নিতাম তাহলে একেকটা ৮০০-১০০০ টাকা করে পড়ে যেত।’আরেক ক্রেতা বলেন, ‘কাপড়ের মান ভালো আছে। অনেক সময় ভালো পাওয়া যায়, অনেক সময় ডিফেক্ট পাওয়া যায়।’এ দিকে মাঝে মাঝে বিত্তবানদেরও ফুটপাত থেকে কাপড়চোপড় কিনতে দেখা যায়। সব মিলিয়ে সাধ্যের মধ্যে সেরা জিনিসটা খোঁজার জায়গা এ ফুটপাতের দোকানগুলো।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ