কোলে এল তিন জমজ, নাম স্বপ্ন-পদ্মা-সেতু

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার এক দম্পতির ঘর আলোকিত করে ভুমিষ্ঠ হয়েছে তিন শিশু। সদ্য ভুমিষ্ঠ হওয়া তিন সন্তানের আগমনে খুশিতে আত্মহারা ওই দম্পতির পরিবার। নারায়ণগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সড়কের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শুক্রবার (১৭ জুন) সকাল সাড়ে দশটায় ওই তিন শিশু ভুমিষ্ঠ হয়। তিন শিশুর পিতা পেশায় ব্যবসায়ী হলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। তাই প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে স্মরণীয় করে রাখতেই সন্তানদের নামকরণ করেছেন স্বপ্ন, পদ্মা ও সেতু।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের বন্দর এলাকার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৪নং ওয়ার্ডের নবীগঞ্জ উত্তরপাড়া এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা আশরাফুল ইসলাম অপুর (৩৪) স্ত্রী এ্যানি বেগম (২৪) নামে এক নারী একসাথে তিন সন্তান প্রশব করেছেন। নারায়ণগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সড়কের হেলথ রিসোর্ট হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে চিকিৎসক বেনজীর হক পান্নার তত্বাবধানে অস্ত্রপাচারের মাধ্যমে ওই তিন শিশু ভুমিষ্ট হয়। এর মধ্যে একজন ছেলে শিশু ও অন্যরা কন্যা শিশু। ছেলের নাম রাখা হয়েছে স্বপ্ন আর দুই মেয়ে শিশুর নাম রাখা হয়েছে পদ্মা ও সেতু। একত্রে বলতে গেলে হয়, ‘স্বপ্নের পদ্মা সেতু’। অপু-অ্যানি দম্পতির এর আগে আব্দুল্লাহ নামে এক পুত্র সন্তান রয়েছে।

ভুমিষ্ট তিন শিশুর বাবা আশরাফুল ইসলাম অপু নিজের অনুভুতি প্রকাশ করে বলেন, আমি ও আমার স্ত্রী অ্যানি বিষয়টি প্রথম জানতে পারি গর্ভে বাচ্চা আসার দ্বিতীয় মাসে। তবে তখন খবরটা শুনে যতটা খুশি হয়েছিলাম, তারচেয়ে কয়েকগুণ আতঙ্কে থাকতাম আমরা। কারণ একসাথে তিন শিশু সুস্থ্য ও স্বাভাবিকভাবে ভুমিষ্ট হয় কিনা এই নিয়ে আমি ও আমার স্ত্রীর মধ্যে সব সময় একটা দুশ্চিন্তা কাজ করতো। আমার স্ত্রীর গর্ভে তিন শিশুর বিষয়টি জানার পর প্রতি মাসে আমরা দুইটি করে আল্ট্রাসাউন্ড পরীক্ষা করি চিকিৎসকের পরামর্শে। তবে সকল উৎকন্ঠা ও দুশ্চিন্তাকে পেছনে ফেলে সেই মাহিন্দ্রক্ষণ আসে গত শুক্রবার (১৭ জুন) সকাল সড়ে দশটায়।

তিনি বলেন, ওই দিন অ্যানিকে সকাল দশটার কিছু আগে অপারেশন থিয়েটারে (ওটি) নিয়ে যাওয়া হয়। সকাল সাড়ে দশটায় ডা. বেনজীর হক পান্না আমাকে ওটি থেকে বেড়িয়ে তিনবার অভিনন্দন জানায়ি বলেন, ভুমিষ্ট তিন শিশু ও আমর স্ত্রী সুস্থ্য আছেন। সেই মুহুর্তের অনুভুতি আসলে ভাষায় প্রকাশ করার মত নয়। আমার আবেগে চোখে পানি চলে এসেছিল। আমাদের এর আগে এক সন্তান হয়েছে, যার নাম আব্দুল্লাহ। প্রথম যখন বাবা হয়েছিলাম সেবারের চেয়ে এবারের আনন্দটা আসলে অনেক বেশি, বলতে পারেন তিনগুণ।

নামকরণের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি যদিও ব্যবসা করি তবে আমি নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী যুব লীগের একজন কর্মী। দলের প্রতি একটা ভালবাসা আছে। আর নামরে আইডিয়াটা মূলত আমাদের নয়। ডা. বেনজীর হঠাৎ গতকাল নতুন অতিথিদের দেখতে এসে জানতে চাইলেন কি নাম রাখা হয়েছে। পরে তাকে বললাম এখনো ভাবিনি কি নাম রাখবো? তখন তিনি বললেন, যেহেতু এই মাসে আমাদের স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন হবে, এর সাথে মিলিয়ে ছেলের নাম রাখতে বললেন স্বপ্ন আর দুই মেয়ের নাম রাখতে বললেন পদ্মা ও সেতু। নামের বিষয়টি আমাদের কাছে বেশ ভাল লেগেছে। যেহেতু আমি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি, প্রধানমন্ত্রীর এই উপহারের প্রতি সম্মান জানিয়ে তাদের নামকরণের সিদ্ধান্ত নেই। আমি আমার সন্তান ও স্ত্রীর সুস্থ্যতার জন্য সৃষ্টিকর্তার প্রতি শুকরিয়া গুজার করছি ও সকলের কাছে দোয় চাই তারা যেন সুস্থ্য থাকে। দেশের জন্য যেন তারা কিছু করতে পারে। বাচ্চা ও বাচ্চাদের মা চিকিৎসকে পর্যবেক্ষণে রয়েছে। আগামীকাল সোমবার তাদের রিলিজ দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

অপু-অ্যানি দম্পতির পারিবারিক চিকিৎসক ডা. বেনজীর হক পান্না ঢাকা পোষ্টকে জানান, আমি অন্তত হাজারের বেশি শিশু ভুমিষ্ট করেছি। এর মধ্যে জমজ শিশুর হিস্টরীও আছে অনেক, তবে এক সাথে তিন শিশুর জন্ম এই প্রথম হলো। প্রথম যে কোন কিছুই অনেক আনন্দের। সবচেয়ে বেশি খুশির ব্যপার হলো তারা সকেলে সুস্থ্য আছেন। মূলত এই ধরনের কেইসে বেশিরভাগ শিশু এবনরমাল বা প্রি-ম্যাচিউর্ড হয়ে জন্মায়অ আল্লাহর রহমতে তারা সুস্থ্য ও স্বাভাবিকভাবেই জন্ম নিয়েছে। তবে ওই শিশু ও শিশুর মাকে ৭২ ঘন্টার পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। আগামীকাল সোমবার তাদের বাড়িতে পাঠানো হবে।

তিনি আরোও বলেন, গর্ভবতী অ্যানি সম্পূর্ণ সুস্থ্য ছিলেন। আমি তাদের নরমাল ডেলিভারীর কথা জানালে তারা সিজারের কথা বলেন। পরিবারের ইচ্ছায় অস্ত্রপাচারের মধ্যমে স্বপ্ন, পদ্মা ও সেতুকে ভুমিষ্ট করা হয়েছে। এই মাসেই পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হবে। ভুমিষ্ট শিশুদের বাবা একজন আওয়ামী লীগার, তাকে নামের বিষয়টি বলায় তাদের দু’জনের বেশ ভাল লাগে। পরে এই নামকরণ করা হয়। মূলত পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে স্মরণীয় করতেই এভাবে নামকরণ করা হয়েছে বলে জানান এই চিকিৎসক।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ