বন্দরে সন্ত্রাসী হামলায় আহত -২

বন্দরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী হামলায় লেবারসহ ২ জন গুরুত্বর জখম হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সন্ত্রাসী আহতরা হলো আক্তার হোসেন ওরফে অপু (৩৮) লেবার রহমান (৫২)। ওই সময় হামলাকারিরা অপু নামে এক ব্যাক্তিকে এসএস পাইপ ও লোহার রড দিয়ে এলোপাতারী ভাবে পিটিয়ে ডান হাত ভেঙ্গে দেয়।  স্থানীয় এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। সোমবার (১২ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় বন্দর উপজেলার গনপাড়া এলাকায় এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি ঘটে। আহতদের মধ্যে অপুর অবস্থা আশংকা জনক বলে তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনায় কাজী নুরুল হক নুরু বাদী হয়ে ঘটনার ওই দিন দুপুরে সন্ত্রাসী হালিমসহ ২ জনের নাম উল্লেখ্য করে ৪/৫ জনকে অজ্ঞাত নামা আসামী করে বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ৮ বছর ধরে  নারায়ণগঞ্জ সদর থানার ৪৭/৮ বিবিরোড এলাকার মৃত কাজী ইসমাইল মিয়ার ছেলে কাজী নুরুল হক নুরু মিয়া গনপাড়া মৌজা ৪৮০ নং খতিয়ানে এসএ ৮৫,৮৬ আরএস ৬৮, ৬৯ নং দাগের নাল ও ভিটি ৩ শতাংশ ৭৩ পয়েন্ট জমি ক্রয় করে ভোগ দখলে রয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় পুরান বন্দর চৌধূরীবাড়ী এলাকার সিরাজুল ইসলামের  ভূমিদৎসু ছেলে হালিমগং উক্ত সম্পত্তী নিজেদের দাবি করে প্রকৃত ক্রয়সূত্রে মালিক কাজী নুরুল হক সম্পত্তী াের পূর্বক দখলের পাঁয়তারা করে। এ ঘটনায় ক্রয়সূত্রে মালিক কাজী নুরুল হক নুরু মিয়া বাদী হয়ে  বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌঃকাঃবিঃ আইনে ১৪৫ ধারা পিটিশন মামলা নং- ১৪৮/২০২২ দায়ের করে। পরে উল্লেখিত বিজ্ঞ আদালত গত ১৩ অক্টোবর পিটিশন মামলার বাদী পক্ষের প্রতি রায় প্রদান করেন। এর ধারাবাহিকতায় সোমবার সকাল ১০ টায় ক্রয় সূত্রে মালিক কাজী নুরুল হক ও তার ভাগ্নিা আক্তার হোসেন ওরফে অপু ও লেবার রহমান  তার জমিতে গেলে ওই সময় উল্লেখিত ভূমিদৎসু হালিম ও তার স্ত্রী মাফি বেগমসহ অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জন ভূমিদস্যু ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে কাজী নুরুল হক মিয়ার ভাগ্নিা অপু ডান হাত ভেঙ্গে ফেলাসহ  লেবার রহমানকে বেদম ভাবে পিটিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়।

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ