ঢাকাবুধবার , ৪ জানুয়ারি ২০২৩
  1. আন্তর্জাতিক
  2. এক্সক্লুসিভ
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. তথ্যপ্রযুক্তি
  6. নগর-মহানগর
  7. নাসিক-২০২১
  8. বিনোদন
  9. রাজনীতি
  10. লাইফ-স্টাইল
  11. লিড
  12. লিড-২
  13. লোকালয়
  14. শিক্ষা
  15. শিক্ষাঙ্গন

মাদক কারবারি সাজিয়ে যুবককে পুলিশে সোর্পদ ছাত্রলীগ নেতার

আবু বকর সিদ্দিক
জানুয়ারি ৪, ২০২৩ ৪:০৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বন্দরে যুবককে মারধর করে মাদক দিয়ে পুলিশে দিলো ছাত্রলীগ নেতা! বন্দরে ফসলি জমির উপর দিয়ে ইটভাটার ট্রাক চলাচলের বাধা দেওয়ার জের ধরে জমির মালিকের জামাতা মিজানুর রহমান (৪২)কে বেদম ভাবে পিটিয়ে ২শ’ পিছ ইয়াবা দিয়ে ধামগড় ফাঁড়ী পুলিশের কাছে সোর্পদ করার অভিযোগ উঠেছে ইটাভাটার মালিক ও ছাত্রলীগ নেতা ওয়াহিদুজ্জামান ওরফে ওয়াহিদসহ তার সাঙ্গপাঙ্গদের বিরুদ্ধে।  মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারী) দুপুর দেড়টায় বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়নের বুনিয়াদী হাজরার বিল থেকে ধরে এনে ফুলহর এলাকাস্থ এএসবি নামীয় ইটভাটার ভিতরে আটক রেখে শারীরিক নির্যাতনের পর ধামগড় ফাঁড়ী পুলিশে সোর্পদ করে উল্লেখিত চক্র। পরে মিজানুর রহমানকে বন্দর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় ধামগড় ফাঁড়ী এসআই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে বন্দর থানায় মাদক আইনে মামলা রুজু করে। যার মামলা নং- ৫(১)২৩। আটককৃত মিজানুর বন্দর থানার ২৭নং ওয়ার্ডের কুড়িপাড়া প্রাইমারী স্কুল সংলগ্ন এলাকার মৃত ডাঃ আব্দুস ছামাদ মিয়ার ছেলে। গ্রেপ্তারকৃত মিজানুরকে মাদক মামলায় বুধবার দুপুরে আদালতে প্রেরণ করেছে।মামলার তথ্য সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার দুপুরে ধামগড় ফাঁড়ী এসআই নজরুল ইসলামসহ তার সঙ্গীয় র্ফোস ধামগড় ফাঁড়ী এলাকায় ওয়ারেন্ট তামিল ও জরুরী ডিউটি পরিচালনার সময় মদনপুর বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান কালে ধামগড় পুলিশ ফাঁড়ী ইনর্চাজ পুলিশ পরিদর্শক মো. মাসুদুর রহমান মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানান বন্দর থানাধীন ফুলহর সাকিনস্থ জনৈক অহিদের এএসবি নামীয় ইটের ভাটার ভিতরে একজন মাদক ব্যবসায়ীকে মাদকসহ স্থানীয় জনগন আটক করিয়া রেখেছে।ওই সময় জরুরি কাজে ডিউটিরত উল্লেখিত ফাঁড়ী এসআই নজরুল ইসলাম বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করে উল্লেখিত ইটভাটার ভিতরে জনৈক সেলিম মিয়ার মুদি ও চায়ের দোকানে সামনে থেকে আটককৃত ব্যাক্তিকে জনগনের নিকট হইতে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত ব্যাক্তির কাছে নাম পরিচয় জানতে চাইলে সে তার নাম পরিচয় জানায়। অত:পর জব্দ তালিকায় উপস্থিত লোকজনের সামনে থেকে খাকি রংয়ের গ্যাবাডিন ফুল প্যান্টের সামনে ডান পকেটের ভিতরে একটি নীল রংয়ের জিপারে রক্ষিত ২শ’ পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট ধৃত আসামীর নিজ হাতে বাহির করে দেয়।   এলাকাবাসীর তথ্য সূত্রে জানা গেছে, বন্দর থানার ফুলহর এলাকার  এএসবি ব্রিকফিল্ডের মালিক ও ছাত্রলীগ নেতা ওয়াহিদুজ্জামান ওরফে ওয়াহিদের সাথে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি এলাকার আব্দুল হাকিম মিয়ার স্ত্রী আকিবা আক্তার আখি সাথে ফসলি জমির উপর দিয়ে ইটভাটার ট্রাক চলাচল নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলছিল। উল্লেখিত চাচি শ^শুড়ীর ফসলি জমি তারেই জামাতা কুড়িপাড়া এলাকার মিজানুর রহমান দীর্ঘ দিন ধরে দেখা শুনা করে আসছে। ইটভাটার মালিক ওয়াহিদুজ্জামান ও তার লোকজন বেশ কয়েক দিন ধরে উক্ত জমির উপর দিয়ে ইটভাটার ট্রাক চলাচল করে জমি নষ্ট করে ফেলেছে ।  এ ঘটনায় মিজান ইটভাটার মালিকে ওয়াহিদুজ্জামানকে বাধা নিষেধ করলে এ ঘটনায় ওয়াহিদুজ্জামান ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।  উক্ত বিরোধের জের ধরে গত মঙ্গলবার দুপুরে ইটভাটার মালিক সন্ত্রাসী ছাত্রলীগ নেতা ওয়াহিদুজ্জামানের লোকজন জমির মালিকের জামাতা মিজানুর রহমানকে ইটভাটায় আটকে রেখে বেদম ভাবে মারপিট করে ২শ’ পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে ধামগড় ফাঁড়ী পুলিশে সোর্পদ করে। ওই সময় আটককৃত মিজানুর রহমানের সাথে থাকা সোহেল (৪৪) গনপিটুনীর কবল থেকে কৌশলে পালিয়ে গিয়ে রক্ষা পায়। এলাকাবাসী নাম প্রকাশ না করার শর্তে আরো জানিয়েছে, মদনপুর ইউনয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি অহিদুজ্জামান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে ফুলহর এলাকাবাসী। আওয়ামীলীগ ক্ষমতা আসার পর থেকে মদনপুর ছাত্রলীগের সভাপতি অহিদুজ্জামান অহিদের ভাগ্য পরিবর্তন ঘটে। ক্ষমতার অপব্যবহার করে অল্প সময়ের মধ্যে গড়ে তোলেছে এএসবি নামক একটি ইটভাটা। বন্দর উপজেলার আওয়ামীলীগের ২/১ জন শীর্ষ নেতার শ্লেটার পেয়ে ছাত্রলীগ নেতা অহিদুজ্জামান আরো দূর্ধর্ষ হয়ে উঠছে। এ ব্যাপারে ইটভাটা মালিক ও ছাত্রলীগ নেতা ওয়াহিদুজ্জামানের ব্যাক্তিগত মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করেই তার সাথে যোগাযোগ করার সম্বভ হয়নি। এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ আবু বকর ছিদ্দিক জানান, আটককৃত বিরুদ্ধে বন্দর থানায় মাদক আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা গ্রেপ্তারকৃতকে ওই মামলায় দুপুরে আদালতে প্রেরণ করেছে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।