ফতুল্লার সেই বাড়ীতে তদন্ত কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফতুল্লা

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার লাল খাঁ এলাকার ফ্ল্যাট বাসায় জমে থাকা গ্যাসে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি। রোববার (২১ নভেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের গঠিত সাত সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোসাম্মৎ রহিমা আক্তারের নেতৃত্বে সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রতিনিধি, ফায়ার সার্ভিসের প্রতিনিধি, তিতাসের প্রতিনিধি ও ফতুল্লা পুলিশের প্রতিনিধিরা পরিদর্শন করেছেন। এসময় তারা স্থানীয় জনসাধারণের জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন। সেই সাথে আশেপাশের বাসিন্দাদের নিরাপদ দূরত্বে রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ার‌্যমানকে নির্দেশনা দিয়ে আসছেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার বলেন, আমরা তদন্ত কমিটির সবাই সরেজমিনে গিয়েছিলাম। যারা প্রত্যক্ষদর্শী তাদের সাথে কথা বলেছি। তাদের জবানবন্দি নিয়েছি। বিল্ডিংটা কি করা যেতে পারে সেটার জন্য রাজউক ও গণপূর্তের মতামত চেয়েছি। বিল্ডিংটা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। আমরা আশেপাশের বিল্ডিংগুলোর বাসিন্দাদের সতর্ক করে আসছি পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়ার আগ পর্যন্ত তারা যেন নিরাপদ দূরত্বে থাকে। বিল্ডিংয়ের পাশের রাস্তায় চলাচলের জন্য নিষেধ করে দিয়েছি।

এর আগে গত ১২ নভেম্বর ফতুল্লার লালখাঁর মোড়ে মোক্তার মিয়ার পাঁচ তলা ভবনের নিচ তলার ফ্ল্যাট বাসায় এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে পাশের আরও তিনটি বাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ফ্ল্যাটের পাঁচটি কক্ষ ও পাশের বাসার তিনটি বাড়ির তিনটি কক্ষের দেয়াল উড়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে পাশের দোকাদাররা।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত মারা গিয়েছে ৪ জন। এদের মধ্যে দুইজন ঘটনার দিন মারা গিয়েছিলেন। তারা হলেন মায়া রানী (৪০) ও মঙ্গলী রানী (৩৫)। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন সবশেষ রোরবার সকালে একজন সহ আরও দুইজন মারা গিয়েছেন। তারা হলেন ঝুমা রানী (১৯) ও তার মা তুলসী রানী (৫০)। আহত হয়েছিলেন অন্তত ১৫ জন। এদের মধ্যে অনেকেই গুরুত্বর এবং কয়েকজন চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে অবস্থান করছেন।

আরোও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ