রূপগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় সংঘর্ষ, ভাঙচুর পেট্রোল ঢেলে নিরীহদের বাড়িঘরে আগুন

- Advertisement -

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, অটোস্ট্যান্ডে চাঁদাবাজি নিয়ন্ত্রণকে কেন্দ্র করে আমজাদ বাহিনীর ও নুরে আলম বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ভাঙচুর ও বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। গত শুক্রবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত দফায় দফায় এই সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

এ ঘটনায় উভয়পক্ষের কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছে।আহতদের মধ্যে ইউনুস, মারজান আক্তার, বিপ্লব, জুমারানী সরকার, অটোচালক সাব্বির, হাসান, শফিক, শুভ, নয়ন, মানিক, জনি, ইউসুফ, তারামিয়া, নাইম, শামীম, নাজমুল হাসান, বাপ্পা, সেলিম, রফিকুল, আলাউদ্দিন, ইয়াছিন, মোবারক, খোরশেদের নাম পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে গোলাকান্দাইল নতুন বাজার এলাকার নুরে আলম বাহিনী সদস্য মাছুম বিল্লাহ, ইমরান, মাসুম মিয়া, রনি, নবী হোসেন, তুহিন মিয়া, পনির হোসেনসহ ২০/২২ জনের একদল মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নিয়ন্ত্রণ করে আসছে। তাদের এই ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ নেয়ার জন্য আমজাদ বাহিনী সদস্যনা নুরে আলম বাহিনীর লোকজনকে বাধা দেয়। এ নিয়ে দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। রাতে নুরে আলম বাহিনীর সদস্যরা রামদা, চাপাতি, চায়নিজ কুড়াল, লোহার রড ও পাইপ নিয়ে আমজাদ হোসেনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। পরে পেট্রোল দিয়ে ভাড়াবাড়ির ১৭টি কক্ষে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘন্টাব্যাপী চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে ঘরে থাকা ভাড়াটিয়াদের টিভি, ফ্রিজ, নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকার ও আসবাবপত্রসহ প্রায় ২৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত নুর আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তিনি গোলাকান্দাইল নতুন বাজার অটো স্ট্যান্ডের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় আনোয়ার হোসেন, তার ভাই আমজাদ হোসেন, আমিনুল ইসলাম ও তার পক্ষের ৮/১০ জন মিলে অটোস্ট্যান্ডে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। তাতে বাধা দিলে অটোস্যান্ডের অফিস ও অফিসের আসবাবপত্র এবং ২৬টি অটো ভাঙচুর করে।

রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এএফএম সায়েদ বলেন, সংঘর্ষের ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়। উভয়পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। সুষ্ঠু তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page