নাসির মামুন কান্ড নিয়ে তারেকের ভার্চ্যুয়াল সভায় আলোচনা

- Advertisement -

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ১০টি ইউনিট কমিটিতে সদস্য সচিবের অনুগত অনুগত, শিল্পপতিদের দেয়া তালিকার নেতাদের দিয়ে কমিটি গঠন, নিজের স্বাক্ষরে নিজেই কমিটিতে আসাসহ নানা অসঙ্গতির কথা উঠে এসেছে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাথে ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে।

শনিবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে দলের নয়াপল্টন কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের পর দলের একাধিক সুত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সুত্রমতে, সভার এক পর্যায়ে কমিটির প্রসঙ্গ আসলে একাধিক নেতা মামুন মাহমুদ ও কমিটি ঘোষণার সময় তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক নাসির উদ্দিনের কান্ড তুলে ধরেন। ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক হবার মাত্র তিনদিনের মাথায় নিজেদের অনুগত, শিল্পপতিতে দেয়া তালিকা অনুযায়ী ব্যক্তিদের দিয়ে সবগুলো কমিটি করেন। কমিটি করতে গিয়ে ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক নাসির উদ্দিন নিজের স্বাক্ষরে নিজেই রূপগঞ্জের তারাব পৌরসভা বিএনপির আহবায়ক বনে যান। বিষয়গুলো উঠে আসলে জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি শান্ত করেন।

জানা যায়, ফতুল্লা থানা বিএনপির সদস্য সচিব শহিদুল ইসলাম টিটু তার বক্তব্যে বলেন, ফতুল্লা থানা বিএনপির কমিটিতে সকলেই একজন শিল্পপতির দেয়া তালিকায় পদে এসেছেন। এখানে যোগ্য অনেকেই বাদ পড়েছেন। তিনি একা আলাদা নিজের মত করে এসেছেন। এভাবে কিভাবে তিনি থানা বিএনপির প্রতিটি ইউনিট কমিটি স্বচ্ছতার সাথে করতে পারবেন তা নিয়ে দেখা দিয়েছেন প্রশ্ন। পরে জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক রবিকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ফতুল্লা থানা বিএনপির নিজের তদারকিরে রেখে করার নির্দেশ দেন।

এসময় রবি বলেন, ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক জাহিদ হাসান রোজেল ও সদস্য সচিব টিটু দুজনেই তার হাতে গড়া। এ থানায় ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটিগুলো তিনি প্রয়োজনে নিজে সশরীরে উপস্থিত থেকে করে দেবেন। যদি কোন সমস্যা দেখেন তাহলে কমিটিতে হস্তক্ষেপ করবেন এবং ব্যবস্থা নেবেন।

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ

You cannot copy content of this page