তৈমূরকে পরিকল্পনামন্ত্রীর সহমর্মিতা

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে হারার পর অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকারকে বিএনপি থেকে বহিষ্কারের বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘তৈমূর আলম খন্দকারকে তার দল যেভাবে হ্যান্ডলিং করেছে, আমি একজন নাগরিক হিসেবে মনে করি, এটা সঠিক হয়নি। যদিও তিনি আইভীর কাকা। তিনি (তৈমূর) আমার কাকা নন, ভাইস্তাও নন। আমি মনে করি, তার প্রতি তার দল (বিএনপি) অবিচার করেছে। এটা সুশীল সমাজের দেখা উচিত।

’২২ জানুয়ারী শনিবার সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) ‘সদ্য সমাপ্ত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন : জনপ্রতিনিধি নির্বাচন প্রক্রিয়া এবং অভিজ্ঞতা’ শীর্ষক ভার্চুয়াল সংলাপে এসব কথা বলেন তিনি।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘তৈমূর আলম খন্দকারের যে দুর্ভাগ্য দেখলাম, নির্বাচনে হারার পরে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হলো। আগে কেন করল না? তার মানে দে ওয়্যার ওয়েটিং, যদি কোনো কারণে তিনি চলে আসেন, তাহলে তো হলোই। এ ধরনের অপরচুনিস্টিক আচরণ দিয়ে বহুদলীয় রাজনীতি করা যাবে না।

’আইভীর উদ্দেশ্যে এম এ মান্নান বলেন, ‘ষড়যন্ত্র নিয়ে তিনি প্রায়ই কথা বলেন। অস্বস্তি নিয়ে হয়তো অনেক কিছু বলতে পারেন না। আমরা আশা করব, এই ষড়যন্ত্র ধীরে ধীরে কাটবে। ২০ বছর আগে যখন তিনি মাঠে নেমেছিলেন তার তুলনায় পর্যায়ক্রমে এটা কমে আসছে বলে আমি মনে করি। আমার ভুল হতে পারে।’তিনি বলেন, ‘ব্যক্তি আইভী ও আওয়ামী লীগের ইমেজের কারণে তিনি (আইভী) জয়লাভ করছেন।

বাকি ষড়যন্ত্রের যে ভীতিটুকু আছে সেটাও কমে যাবে। আইভীর জয়ে আমাদের দল অনেক আনন্দিত। ভোট নিয়ে অনেক কথা হয়। তবে নারায়ণগঞ্জের এই ভোট অভিযোগগুলোকে ভাসিয়ে দিয়ে যাবে বলে আমার ধারণা।’

আরও পড়ুন

- Advertisement -

কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

ডেইলি নারায়ণগঞ্জে প্রকাশিত কোন সংবাদ, তথ্য, ছবি এবং ভিডিও কন্টেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ